আওয়ামীলীগ জনগণের ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার -বেগম মতিয়া চৌধুরী

আওয়ামীলীগ জনগণের ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার -বেগম মতিয়া চৌধুরী
বর্ধিত সভার ছবি - সালাহ উদ্দিন খান রুবেল

সালাহউদ্দিন খান রুবেল, নেত্রকোণা, ১৮ অক্টোবর ২০২০।।

নেত্রকোণা জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে গতকাল শনিবার দুপুরে মোক্তারপাড়াস্থ পাবলিক হলে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।
 
       নেত্রকোণা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিয়র রহমান খানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপির সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষা মন্ত্রী ডাঃ দিপু মনি এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, বর্ধিত সভার (সমন্বয়ক) শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাংগঠনিক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাকিয়া পারভীন মনি, হাবিবা রহমান খান শেফালী,কেন্দ্রীয় কার্য-নির্বাহী কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, উপাধক্ষ্য রেমন্ড আরেং, নেত্রকোণা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়।
 
     বর্ধিত সভায় আওয়ামীলীগ নেত্রকোণা জেলা কমিটির সদস্য ছাড়াও উপজেলা কমিটির সভাপতি - সাধারণ সম্পাদকগণ ও সংসদ সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন। বর্ধিত সভায় বক্তারা দলের সাংগঠনিক কার্যক্রমের পাশাপাশি  নেতৃবৃন্দের বিভিন্ন কার্যকলাপ ও দলের দুর্বলতাগুলো তুলে ধরে তা অতি দ্রুত সমাধানের অনুরোধ জানান। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বর্ধিত সভায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দকে নিজেদের মধ্যে দলাদলি, ভুল বুঝাবুঝি ও দ্বন্ধ কোন্দলের অবসান ঘটিয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে দলকে তৃণমূল পর্যায়ে আরো বেশী সু-সংগঠিত ও শক্তিশালী করার আহবান জানান।

ভার্চুয়ালের মাধ্যমে প্রধান বক্তা হিসেবে ডাঃ দিপু মনি বলেন,  যারা সারা দিন বাঙ্গালির জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে কথা বলেন, কিন্তুু বাস্তবে নেই তাদের প্রতি আওয়ামীলীগ সজাগ। আওয়ামীলীগ টানা ৩ বার এই নিয়ে ৪ বার ক্ষমতায় তাই কিছু কিছু এলাকায় পক্ষ - বিপক্ষ সৃষ্টি হয়েছে নিজেদের মাঝে, এমনকি অনুপ্রবেশকারী স্থান করে নিয়েছে তাও শ্রদ্ধেয় নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা খোঁজখবর রাখছেন তাদেরকেও সময় উপযোগী জবাব দিবেন। মনে রাখবেন ব্যাক্তির চেয়ে দল বড়। কিন্তুু বিগত সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত অমান্য করে অনেক জেলা - উপজেলা ও ইউনিয়নের নেতৃত্বস্থানীয় নেতারা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন তারেদকে বরদাস্ত করা হবেনা।  নেত্রকোণা জেলার নেত্রকোণা সদর ও বারহাট্রা উপজেলার ওর্য়াড, ইউনিয়ন কমিটির সম্মেলনের জন্য গত ২৩ এবং ২৪ সেপ্টেম্বর ঢাকায় মিটিং করা হয়, সে মোতাবেক সিদ্ধান্ত হয় আগামী দেড় - দুই মাসের মধ্যে শেষ করবেন, নেত্রকোণা সদর কার্যক্রম শুরু করলেও বারহাট্রা উপজেলার কার্যক্রম হচ্ছেনা তা কেন হচ্ছে না দ্রুত জানাবেন বারহাট্রার নেতৃবৃন্দ। অন্যথায় আওয়মীলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আওয়ামীলীগের গঠনতন্ত্র সুশৃঙ্খল ও গণতান্ত্রিক। 

প্রধান অতিথির বক্ত্যব্যে আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি বলেন - প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে উন্নতির সোপানে নিয়ে গেছেন। দেশের মানুষকে মুক্ত করার জন্য, গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য, দেশের মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য দিনরাত অবিচল - অনড় কাজ করে যাচ্ছেন। নারী ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন, নারী ক্ষমতায়ন সৃষ্টি হলে পরিবারে, সমাজে, রাষ্টে মাথা উঁচু করে দাড়াতে পারবেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলার মানুষের জন্য, আওয়ামীলীগের জন্য অপার ভালোবাসা ছিল - এটা মনে রাখবেন। আওয়ামীলীগ কোনো রেডিমেট দল নয়, জিয়াউর রহমানের দল নয়, সার্কাসের দল নয় - যে নেচে-গেয়ে চলে গেলাম। আওয়ামীলীগ জনগণের ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার।