আনোয়ারায় চাতরী চৌমুহনী বাজারে,অল্প বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা

আনোয়ারায় চাতরী চৌমুহনী বাজারে,অল্প বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা

শেখ আবদুল্লাহ, আনোয়ারা প্রতিনিধি।। ২৪ মে, সোমবার।। চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী বাজারের  বিদ্যমান ড্রেনসমূহ অপরিষ্কার করণে অল্প বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা  সৃষ্টি হয়।

সোমবার (২২ মে) সন্ধ্যায় অল্প বৃষ্টিতে ড্রেনসমূহ অপরিষ্কারকর হওয়ার  কারনে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। বাজারে আর হাঁটা যাইনা ময়লা পানিতে।

আসন্ন বর্ষ আগে চাতরী চৌমুহনী বাজারে ড্রেনসমূহ পরিষ্কারকরণের কার্যক্রম না  করলে চৌমুহনী বাজার জলাবদ্ধতা  সৃষ্টি হবে বহু গুণ।

গত ( ২২জুলাই) ২০২০ সালে চাতরী চৌমুহনী বাজার ব্যবসায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শেখ জোবায়ের আহমেদ  ড্রেনের কাজটি  করা হলে আশা করা যাই জলাবদ্ধতা আর থাকবেনা।

উপজেলা প্রকৌশলীর অফিস সূত্রে জানা যায়, পিএবি সড়কের চাতরী চৌমুহনী বাজারের পানি নিস্কাসনের জন্য ১৮-২০১৯ অর্থ বছরে উপজেলা প্রশাসন ৬০ লক্ষ টাকা প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করে। এরমধ্যে সড়কের দুই পাশে ড্রেন নির্মাণ, চলাচলের জন্য ফুটপাত তৈরী, গোল চত্বরও রয়েছে।

কিন্তু বছর না হতে আবারও ড্রেনসমূহ বিহোল অবস্থা যার কারনে অপরিষ্কারকরণের আসন্ন বর্ষ  জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে চাতরী চৌমুহনী বাজারে এখন সামান্য বৃষ্টি হলে বাজারে আর হাঁটা যাইনা ময়লা পানিতে বরে যাই চৌমুহনী বাজার।

চাতরী চৌমুহনী ব্যবসায় সমিতির সহ-সভাপতি ও স্হানীয় ব্যবসায়ী, আবুল মনছুর বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে অপরিষ্কারের কারণে ড্রেনে পানি চলাচল জমে  তাকে ,তাই জলাবদ্ধতাসহ নোংরা পরিবেশ বিরাজ করছে।  ক্রেতা ও বিক্রেতা তামন সচেতন নই এতে তারা ড্রেনে  ময়লা আবর্জনা ফেলে অপরিষ্কার হয়ে  যাই তাই পানি জমে  তাকে। আসন্ন বর্ষ আগে পরিষ্কারকরণের কার্যক্রম না  করলে চৌমুহনী বাজার জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে।


উপজেলা নিবার্হী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ বলেন,  সড়কটির আশপাশের ব্যবসায়ীদের বর্জ্য ড্রেনে ফেলার কারণেও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। যারা এসব কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওযা হবে। তিনি আরো বলেন, সড়ক দখল করে যারা অবৈধভাবে দোকান গড়ে তুলেছে তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে শীঘ্রই ব্যবস্থা নেয়া হবে।