আপাতত খুলছে না বলাকা ও মধুমিতা

আপাতত খুলছে না বলাকা ও মধুমিতা
ছবিঃ সংগৃহীত

আবদুল্লাহ শিবলী, ষ্টাফ রিপোর্টার, ১৫ অক্টোবর ২০২০।।

করোনা সংক্রমণের মধ্যে সাত মাস বন্ধ থাকার পর শুক্রবার থেকে সিনেমা হল খোলার অনুমতি মিললেও রাজধানীর বড় সিনেমা হলগুলো খুলতে আরও সময় নেওয়ার কথা জানিয়েছে হল মালিকরা।

দর্শক খরার শঙ্কায় দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার আগে বলাকা খুলছে না জানিয়েছে হলটির ব্যবস্থাপক এস এম শাহীন।

তিনি  বলেন, “আমাদের দর্শক মূলত শিক্ষার্থীরা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এখন দর্শক পাওয়া কঠিন হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে ও দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে হল খোলার পরিকল্পনা আছে।”

অন্যদিকে ‘মানসম্পন্ন’ চলচ্চিত্রের অভাবে মধুমিতা সিনেমা হল খুলতে পারছেন না বলে জানান হলটির কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

প্রায় ২০টির মতো চলচ্চিত্র মুক্তির তালিকায় থাকলেও শুক্রবার ‘সাহসী হিরো আলম’ নামে একটি চলচ্চিত্র মুক্তি পাচ্ছে। বিগ বাজেটের চলচ্চিত্রগুলো কবে মুক্তি পাবে তা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে।

প্রযোজক বলছেন, কোটি টাকা ব্যয় করে নির্মাণ করা ছবি এই সময়ে লোকসানের শঙ্কায় তারা মুক্তি দিতে চান না।


ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ   বলেন, “হিরো আলমের ছবি দিয়ে আপাতত সিনেমা হল খুলব না। প্রয়োজনে আরও দেরি করব কিন্তু ভালো ছবি দিয়েই হল খুলব।”

এর বাইরে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স, যশোরের মনিহার সিনেমা হল, চিত্রামহলসহ দেশজুড়ে ৪০টির মতো সিনেমা হল খোলার কথা রয়েছে।

এর মধ্যে স্টার সিনেপ্লেক্সের তিনটি সিনেমা হল এক সপ্তাহ পিছিয়ে ২৩ অক্টোবর থেকে খুলছে বলে জানিয়েছে স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান।

যশোরের ‘মনিহার’ সিনেমা হল শুক্রবারই খুলছে বলে জানিয়েছেন হলটির ব্যবস্থাপক আলী আকবর।

তিনি বলেন, ‘শাহেনশাহ’ সিনেমা দিয়ে শুক্রবারই আমরা হল চালু করছি। ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। শুধু প্রচারণা বাকি রয়েছে, সামনের সপ্তাহ থেকে শুরু করব।”

এর বাইরে শুক্রবার আনন্দ, চিত্রামহল, জিঞ্জিরাসহ দেশের ৪০টি সিনেমা হল খুলছে; হলগুলোতে প্রদর্শিত হবে ‘সাহসী হিরো আলম’ নামে একটি চলচ্চিত্র।