আমার মনটা কিন্তু টুঙ্গিপাড়ার মাটিতেই পড়ে আছে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আমার মনটা কিন্তু টুঙ্গিপাড়ার মাটিতেই পড়ে আছে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
ছবিঃ সংগৃহীত

মোহাম্মদ হাসান। স্টাফ রিপোর্টার।। ১৭ মার্চ, বুধবার।। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২১ উপলক্ষে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শিশু-কিশোরদের অনুষ্ঠানে যেতে না পেরে আফসোস করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দূরে আছি এটা ঠিক। আমার মনটা কিন্তু টুঙ্গিপাড়ার মাটিতেই পড়ে আছে। অবশ্যই খুব তাড়াতাড়িই টুঙ্গিপাড়ার আসবো। তোমাদের সঙ্গে দেখা হবে, তোমরা ভালো থাকো সুস্থ থাকো সেই দোয়া করি।

আজ ১৭ মার্চ বুধবার সকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২১ উপলক্ষে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা।

শিশু-কিশোরদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি দূরে আছি এটা ঠিক। তবে তোমরা তো জানো ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি বলে দূরে থাকলেও অন্তত চোখের দেখাটা তো দেখতে পারছি, কথা বলতে পারছি তাই না? ডিজিটাল বাংলাদেশ না হলে তো আর এটা করতে পারতাম না। তো তোমরা টুঙ্গিপাড়ায় আছো, আর আমি এইটুকু বলতে পারি আমার মনটা টুঙ্গিপাড়ায়, হয়তো আমি এখানে বসে আছি। আমাদের রাষ্ট্রীয় কাজের জন্য। কিন্তু সব সময় ১৭ই মার্চ আমি টুঙ্গিপাড়ায় থাকি, আমি আমার ছোট বোন রেহেনাও আছে। আমাদের দুজনেরই থাকার কথা, যেহেতু আমাদের অনেক বিদেশি অতিথি অনেক অনুষ্ঠান। মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ঢাকায় এসেছেন তাকে নিয়ে অনুষ্ঠান হচ্ছে, সে কারণে আসতে পারলাম না। অবশ্যই খুব তাড়াতাড়ি টুঙ্গিপাড়ায় আসবো। তোমাদের সঙ্গে দেখা হবে তোমরা ভালো থাকো সুস্থ থাকো সেই দোয়া করি।

তিনি আরও বলেন, আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন করছি। সেই সাথে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছি। স্বাধীনতা অর্জনের ৫০ বছর পূর্তি সেই হিসেবে অনেক বিদেশি অতিথি আমাদের দেশে আসছেন। প্রায় প্রতিদিনই অনেক দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, সরকারপ্রধান অর্থাৎ রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী তারা আসবেন। আজকে আমাদের উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে। সে কারণে আমার পক্ষে আসা সম্ভব হলো না। পাশাপাশি করোনার কারণে অনেক বেশি লোক সমাগম হলে অনেকের ক্ষতিসাধন করতে পারে। তারপরও সীমিত পরিসরে এই অনুষ্ঠান হচ্ছে ছোট্ট সোনা বন্ধুরা তোমরা ভালো থেকো সুস্থ থেকো সাবধানে থেকো।