ইতিহাস বিকৃতিকারীরা এক ধরনের দুস্কৃতিকারী : তথ্যমন্ত্রী

ইতিহাস বিকৃতিকারীরা এক ধরনের দুস্কৃতিকারী : তথ্যমন্ত্রী
ছবিঃ সংগৃহীত

আজকাল বাংলা ডেস্ক। ১৩ মার্চ, শনিবার।। শনিবার সকালে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে পতেঙ্গা সী-বীচে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) আয়োজিত সিটি আউটার রিং রোডে সাইকেল লেইন’র উদ্বোধনকালে তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, যারা ইতিহাস বিকৃতি ঘটায়, তারা ইতিহাসের পাতায় এক ধরণের দুস্কৃতিকারী।

'স্বাধীনতার এই সুবর্ণ জয়ন্তীতে বিএনপিসহ যে সকল রাজনৈতিক দল এই ধরনের ভুল করেছে, আশা করি তারা সেই ভুল থেকে বের হয়ে আসবেন, তাহলে দেশের মানুষ তাদেরকে সাধুবাদ জানাবে' বলেন তিনি।

বিএনপির উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'আমরা আশা করেছিলাম, তারা স্বাধীরতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর বছরে সত্যটাকে মেনে নেবেন, ইতিহাস মেনে নেবেন। কিন্তু তারা জন্মলগ্ন থেকে কয়েক দশক ধরে যে ইতিহাসবিকৃতি করে আসছেন, ৭ই মার্চ পালন করতে গিয়েও সেটি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেন নাই।'

এসময় 'পাকিস্তানিদের বুঝের সাথে বিএনপির বুঝের খুব মিল রয়েছে' উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'দেখলাম ৭ই মার্চ পালন করতে গিয়ে বিএনপি যে বক্তব্য দিল তাতে বোঝা যায়, ৭ই মার্চের ভাষণ পাকিস্তানিরা যেমন বুঝতে পারে নাই, তেমনি বিএনপিও বুঝতে পারে নাই।'

সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষ, বোর্ড সদস্য মো. জসিম উদ্দিন, কে.বি.এম শাহজাহান, জসিম উদ্দিন শাহ, এম আর আজিম, রোমানা নাছরিন, বোর্ড সচিব আনোয়ার পাশা প্রমুখ।

তথ্যমন্ত্রী এসময় পরিবেশবান্ধবতার জন্য চট্টগ্রাম শহরে আরো রাস্তায় এই সাইকেল লেইন করার জন্য সিডিএকে অনুরোধ জানান। সাইকেল লেইন উদ্বোধনকালে মন্ত্রী নিজেও সাইকেল চালান।  

তিনি বলেন, প্রথম থেকেই সিডিএ’র কাছে নিবেদন ছিল এখানে একটা সাইকেল লেইন রাখার। আমি বিদেশে পড়ালেখা কালে সাইকেল চালিয়ে ভার্সিটিতে আসা-যাওয়া করতাম। আমাদের শহরগুলোতেও এধরণের সাইকেল লেইন করতে পারলে ভালো হতো। 

শনিবার সকালে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় সাইকেল লেইন উদ্বোধনকালে তথ্যমন্ত্রী নিজেও সাইকেল চালান।