লুঙ্গি খুলে হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যায় চুরি মামলার আসামি

লুঙ্গি খুলে হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যায় চুরি মামলার আসামি
ছবি: সংগৃহীত

নরসিংদী প্রতিনিধি।। হাতকড়া নিয়ে পালিয়েছে হাজতি।  চুরির মামলায় গ্রেফতার হওয়া এক ব্যক্তি পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে হাতকড়া নিয়ে পালিয়েছে। পালানোর সময় পুলিশ তার  লুঙ্গি ধরতে গেলে সেটা খুলে যায় এবং গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তি উলঙ্গ অবস্থায় পালিয়ে যায়। 

ঘটনাটি ঘটেছে নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজারে। পুলিশ জানায়, চুরির মামলায় গ্রেফতার হওয়া শাহ আলম (৩২) কে নরসিংদী জেলা কারাগার থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নেবার পথে দুপুরে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাঁচরুখী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শাহ আলম নরসিংদীর বেলাব থানার উজিলাব গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার নরসিংদী জেলা কারাগার থেকে বাসে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হচ্ছিল চুরির মামলার দুই হাজতিকে। সঙ্গে ছিলেন নরসিংদী পুলিশ লাইন্সের নায়েক মো. মামুন শেখ ও কনস্টেবল ফারুক। এদিন দুপুরে বাসটি আড়াইহাজার উপজেলার পাঁচরুখী বাজার এলাকায় এসে যানজটে পড়ে। ফলে ধীরে ধীরে চলছিল বাসটি। কিছুক্ষণ পর দুই হাজতির মধ্যে শাহ আলম হঠাৎ বাসের দরজা দিয়ে নিচে লাফ দেন। নায়েক মামুন ও কনস্টেবল ফারুক দ্রুত বাস থেকে নেমে আসামিকে ধাওয়া করেন। এ সময় শাহ আলম দুই পুলিশ সদস্যের ওপর হামলা করেন। তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তিও হয়। এক পর্যায়ে নায়েক মামুনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে শাহ আলম দৌড় দেন। কনস্টেবল ফারুক তার লুঙ্গি ধরে টান দিলে লুঙ্গিটি হাতেই থেকে যায়। উলঙ্গ অবস্থায় দৌড় দেয় শাহ আলম।

পরবর্তীতে শাহ আলমকে খুঁজতে মাইকিং করা হয় এছাড়াও টহল পুলিশ এনেও খোঁজ করা হলেও তাকে না পাওয়ায়  নায়েক মামুন শেখ বাদী হয়ে পলাতক শাহ আলমের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় পেনাল কোডের ধারায় নিয়মিত মামলা রুজু করেন।

নারায়ণগঞ্জ আড়াইহাজার থানার ওসি আজিজুল হক হাওলাদার বলেন, আসামি পালিয়ে যাওয়ার পর বিষয়টি জানানো হয়। পরে অভিযান চালিয়ে রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।