একুশে বই মেলায় গবেষক ও কথা সাহিত্যিক মিনার মাসুদের বাংলাদেশের জামদানি

একুশে বই মেলায় গবেষক ও কথা সাহিত্যিক মিনার মাসুদের বাংলাদেশের জামদানি
ছবিঃ সংগৃহীত

আজকাল বাংলা ডেস্কঃ গবেষক ও কথাসাহিত্যিক মিনার মাসুদের গবেষণা ও সম্পাদনায় ঝালকাঠি পাবলিকেশন্স খুব শিঘ্রই  নিয়ে আসাছে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অংশ জামদানি শাড়ির প্রকাশনা। তিনি  এই গ্রন্থে দেখিয়েছেন যে, জামদানি শাড়ি মানে বারো হাত বহরের শাড়িই শুধু নয়, এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, অহংকার ও তাঁতের শিল্পিত ক্যানভাস।

মুঘল রাজপরিবারের প্রিয়তম জামদানি আজও তার মহিমা বজায়  রেখে সগৌরবে বিরাজমান। জামদানি একটি ফারসি শব্দ এবং এর মানে বুটিদার কাপড় (কোন কোন ইতিহাসবিদ মনে করেন)। প্রমাণ পাওয়া যায়, জামদানির বুনন পৃথিবীর অন্য কোনো তাঁতিদের পক্ষে সম্ভব নয়। এমন কি এক সময় ঢাকার কয়েকটি উপজেলা ছাড়া বাংলাদেশের অন্যান্য জায়গায়ও  বোনা সম্ভব হত না এই শাড়ি। আদিকাল থেকে ঢাকার কয়েকটি উপজেলায় এই শাড়ির গুণী তাঁতিদের বংশানুক্রমিক বসবাস। তাই জামদানি একান্তই ঢাকার, একান্তই বাংলাদেশের।


ঐতিহ্যবাহী নকশা ও বুণনের কারণে ২০১৬ সালে জামদানিকে বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক জিআই (মবড়মৎধঢ়যরপধষ রহফরপধঃরড়হ) পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো। এই স্বীকৃতিতে অবশ্য বাংলাদেশের মহিমান্বিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার উদ্যোগ প্রশংসনীয়। তিনি জামদানি শাড়িকে আন্তর্জাতিক মহলে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। জামদানি শাড়ি তিনি শুধু অঙ্গে ধারণ করেন তাই-ই নয়। তিনি এই শাড়িকে নিয়ে গেছেন এক অনন্য উচ্চতায়।