কক্সবাজার লাইটহাউজ পাড়ায় তিনটি কটেজে ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযান!

কক্সবাজার লাইটহাউজ পাড়ায় তিনটি কটেজে ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযান!
ছবিঃ সংগৃহীত

কক্সবাজার প্রতিনিধি ।। কক্সবাজার শহরের লাইটহাউজ পাড়াস্থ কটেজ জোনে তিনটি কটেজে ট্যুরিস্ট পুলিশের রহস্য ঘেরা ঝটিকা অভিযান চলেছে!

তবে অভিযানে কেউ আটক হয়নি।২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে সাদা ও পোষাকধারী একদল পুলিশ এ অভিযান চালায়। এতে করে পর্যটকদের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে। 
স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামান (সাদা পোষাকধারী) এর নেতৃত্বে এসআই এরশাদসহ ৭/৮ জনের একদল ট্যুরিস্ট পুলিশ সাদা ও পুলিশ পোশাকে লাইটহাউজ পাড়াস্থ কটেজ জোনের ঢাকার বাড়ী-১, ঢাকার বাড়ী-১ ও বৃহস্পতিবার বিকালে চালু করা রহিমের নতুন কটেজে হানা দেয়। নতুন চালু করা কটেজ ও ঢাকার বাড়ী-১ও২ এ তল্লাশী চালানো হয়।
বৃহস্পতিবার বিকালে নতুন চালু করা কটেজের বিভিন্ন কক্ষ খুলে তল্লাশী করলেও কোন বর্ডার পাননি। তবে ঢাকা বাড়ী-২ নামের বির্তকিত কটেজে বেশ কিছু খদ্দর ও নারী ( নগরবধূ) পেলেও তাদের আটক করে নিয়ে যাননি।
ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা কোন অভিযান নয়। পর্যটন এলাকায় অপরাধ সংগঠিত হওয়ার আগে তা প্রতিরোধের জন্য পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে পুলিশের মহড়া।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের পুলিশ সুপার (এসপি) জিল্লুর রহমান বলেন, ট্যুরিস্ট পুলিশের কোন অভিযান চলেনি। তবে নিয়মিত টহল জোরদার করছে।
তিনি বলেন, আমি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিনের সাথে কথা বলে বিস্তারিত খবর নেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।

ব্যবসায়ীদের মতে, লাইটহাউস এলাকায় রহিম নতুন একটি কটেজ উদ্বোধন করা হয় বৃহস্পতিবার বিকালে। ওই কটেজেসহ তিনটি কটেজে সন্ধ্যার পর অভিযান চালানো রহস্য জনক।
নতুন চালু করা কটেজে রুম খুলে খুলে তল্লাশী চালালেও কোন বর্ডার পাননি। তবে অন্য কটেজগুলোতে বেশ কিছু নারী ও খদ্দের পেলেও তাদের আটক করেনি। এধরনের রহস্যজনক অভিযানে পর্যটকদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। অনেক পর্যটক ভয়ে এলাকা ছেড়েছে। 

তবে, অনেকের অভিযোগ, ঢাকা বাড়ী ১ও ২ এ সার্বক্ষণিক অন্তত ৫০ জন করে নগরবধূ রাখা হয়। পতিতাদের আখড়াগুলো থেকে বিভিন্ন হোটেল ও কটেজে এসব নারী ঘন্টা হিসেবে সরবরাহ দিয়ে আসছে।