কক্সবাজার লিংক রোডে নালার উপর নির্মাণাধীন অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

কক্সবাজার লিংক রোডে নালার উপর নির্মাণাধীন অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ
ছবি: সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন,  স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার, ৩০ জুন।। কক্সবাজার সদর উপজেলার লিংকরোড স্টেশনে কাঁচাবাজার সংলগ্ন বিশাল নালা দখল করে নির্মাণাধীন বহুতল ভবন উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। এসময় নালা ও উপজেলা পরিষদের বরাদ্দে নির্মিত গাইড ওয়াল উদ্ধার করা হয়েছে।

কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকারিয়ার নেতৃত্বে চালানো হয় এ অভিযান। 
বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকাল ৫ টায় চালানো অভিযানে নালার উপর নির্মিত পাকা দালান উচ্ছেদ করা হলেও স্থানীয় গফুর সওদাগরসহ আরো কয়েকজন অবৈধ দখলদারের ভবন অক্ষত থাকায় জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। 
জানা গেছে, লিংক রোড স্টেশনে কাঁচাবাজার সংলগ্ন নালা দখল করে মার্কেট নির্মাণ, গাইড ওয়াল দখল, নালা ভরাট করে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ চলে আসছিল। এতে এলাকার বেশ কিছু পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে। 
এলাকাবাসী এঘটনায় বাব বার বাঁধা দিলেও থামাতে পারেনি অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ কাজ।

এলাকাবাসী জানান, লিংক রোড স্টেশনে বনফুলের পেছনে কাঁচাবাজার সংলগ্ন বিশাল নালাটি দখল করে গত এক মাস ধরে স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানে সরকারি জমিতে অবস্থিত নালা ও উপজেলা পরিষদের বরাদ্দে নির্মিত গাইড ওয়াল দখল করা হয়। এর পাশে নালা ভরাট করে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করেছে আরো কয়েক ব্যক্তি। এছাড়াও সরকারী জমি দখল করে গফুর সওদাগরও বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকাল ৪ টার সময় কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাকারিয়ার নেতৃত্বে সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো. জিল্লুর রহমান , সহকারী ইউনিয়ন  ভুমি কর্মকর্তা মো. আবুল কাশেম এ অভিযান চালায়। 
এসময় স্কেভেটর দিয়ে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়া হয় এবং এছাড়া উপজেলা পরিষদের বরাদ্দে নির্মিত গাইড ওয়াল ও নালা উদ্ধার করা হয়েছে। 
কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকারিয়া  বলেন, নালা দখল করে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। পাশাপাশি ওই এলাকায় অন্যান্য অবৈধ স্থাপনাগুলোও উচ্ছেদ করা হবে।
স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ,  সম্পূর্ণ সরকারী জমিতে গফুর সওদাগর নামের এক ব্যক্তি বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে, পাশাপাশি নালা দখল করে ভবন ও বাড়ি নির্মাণ হয়েছে। উচ্ছেদ করা একটি ছাড়া আরও ৪/৫ টি অবৈধ স্থাপনা অক্ষত রয়েছে। এনিয়ে জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সরকারী জমিতে গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনাগুলো উচ্ছেদের দাবী জানান এলাকাবাসী।