কক্সবাজারে ১৮ লাখ পিস ইয়াবা পাচারের ঘটনায় আটক ৪ জনের রিমান্ড মঞ্জুর

কক্সবাজারে ১৮ লাখ পিস ইয়াবা পাচারের ঘটনায় আটক ৪ জনের রিমান্ড মঞ্জুর
ছবিঃ সংগৃহীত

জাফর আলম,কক্সবাজার,১৪ ফেব্রুয়ারি।।প্রায় ১৮ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পাচার ও নগদ এক কোটি ৭০ লাখ ৬৮ হাজার ৫০০ টাকা উদ্ধারের ঘটনায় আটক মাদক কারবারী জহুরুল ইসলাম প্রকাশ ফারুক (৩৭) সহ ৪ জন আসামীর ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নাম্বার-৪ এর বিজ্ঞ বিচারক জেরিন সুলতানা রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী রিমান্ড আবেদন এর শুনানি শেষে রিমান্ডের এ আদেশ দেন।রিমান্ডের জন্য আদেশ দেয়া মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন, কক্সবাজার শহরের উত্তর নুনিয়াছড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে মাদক কারবারী জহুরুল ইসলাম প্রকাশ ফারুক (৩৭), মোজাফফর আহমদের ছেলল নুরুল আলম প্রকাশ বাবু (৫৫), একই এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে আবুল কালাম (৫০) ও আবুল কালামের ছেলে শেখ আবদুল্লাহ (১৯)।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) জেলা গোয়েন্দা শাখা শাখার (ডিবি) ওসি শেখ মোহাম্মদ আলীর ১০ দিনের রিমান্ড আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞ বিচারক এ আদেশ দেন।আদালতে আসামিদের পক্ষে রিমান্ড আবেদন এর বিপক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মোঃ ছৈয়দ আলম,এডভোকেট হারুন অর রশিদ,এডভোকেট আবুল হোসেন প্রমুখ।প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারী কক্সবাজার সদর উপজেলার চৌফলদন্ডী ঘাটে ফিশিং ট্রলার থেকে ১৪ লাখ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট এবং একইদিন বিকেলে মামলার মাদক কারবারী জহুরুল ইসলাম প্রকাশ ফারুকের উত্তর নুনিয়াছড়াস্থ বাড়ি থেকে নগদ এক কোটি ৭০ লাখ ৬৮ হাজার ৫০০ টাকা ভর্তি দুটি বস্তা উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।এছাড়াও একই দিন রাতে মাদক কারবারী ফারুকের চাচা শ্বশুরের বাড়ি থেকে ৩ লাখ ৭৫ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।এঘটনায় ফারুকের চাচী শাশুড়ি ছমিরাসহ ৫ জনকে আটক করা হয়।ডিবির ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। মাদক উদ্ধারের ঘটনায় আটক ইয়াবা ডন যুবদল নেতা ফারুকের চাচী শ্বাশুড়ি ছমিরা গত বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক দেন।

জবানবন্দিতে মাদক কারবারীদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন ডিবির ওসি মোহাম্মদ আলী ।