কক্সবাজারে ৩৪ মামলার আসামীকে পিটিয়ে হত্যা

কক্সবাজারে ৩৪ মামলার আসামীকে পিটিয়ে হত্যা
ছবি: সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার, ২৬ জুলাই।।কক্সবাজার জেলার পেকুয়ায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে জাফর আলম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। 

সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের পাহাড়িয়াখালী ছনখোলা জুম এলাকার বাদামতলী স্টেশনে এ ঘটনা ঘটেছে। 
তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, ধর্ষণ, অস্ত্র, পুলিশের উপর হামলা, হত্যাচেষ্টা ও বন মামলাসহ ৩৪ মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।
নিহত জাফর আলম ওই এলাকার নজির আহমদের ছেলে। তার মৃত্যুর বিষয়টি পেকুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ ফরহাদ আলী নিশ্চিত করেছেন। 
স্থানীয়রা জানান, সোমবার জাফর আলম চকরিয়া কোর্ট থেকে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় ছনখোলা স্টেশনে পূর্বপরিকল্পিতভাবে ওঁৎ পেতে থাকেন তার প্রতিপক্ষরা। জাফর স্টেশনে পৌঁছালে ৭-৮ জনের একটি দল লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে তাকে জখম করে। 
স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌহিদুল ইসলাম মৃত ঘোষণা করেন।
নিহত জাফর আলমের স্ত্রী জ্যোৎস্না আক্তার বলেন, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে সন্ত্রাসীরা আমার স্বামীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই।'
পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ ফরহাদ আলী বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।
সূত্রে জানা যায়, নিহত জাফর আলমের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর সালমা, নিরহ নেজাম উদ্দিনকে হত্যা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আনছার হত্যাচেষ্টা, পুলিশের উপর হামলা, অস্ত্র উদ্ধার মামলা ও বন মামলাসহ ৩৪টির অধিক মামলা চলমান রয়েছে। সদ্য সালমা হত্যা মামলায় কারাভোগ করে বের হয়েছেন।
এছাড়াও তার বড় ছেলে জাহাঙ্গীর আলম প্রকাশ বনের রাজা জাহাঙ্গীর অস্ত্র আইনে বর্তমানে জেলে থাকলেও বেশ কয়েকটি হত্যা, হত্যাচেষ্টা ও বন মামলার আসামীর তালিকায় রয়েছেন। ছোট ছেলে আলমগীরও সদ্য দুইটি হত্যা মামলায় জেলে রয়েছে। এছাড়াও তার পরিবারের মহিলা ও পুরুষ সদস্যদের বিরুদ্ধের বেশ কয়েকটি মামলা আদালতে চলমান রয়েছে।