কণ্যা শিশুকে প্রযুক্তিতে সম্মৃদ্ধ করতে তাদেরকে সুশিক্ষিত করতে হবে  

কণ্যা শিশুকে প্রযুক্তিতে সম্মৃদ্ধ করতে তাদেরকে সুশিক্ষিত করতে হবে  
ছবিঃ সংগৃহীত

মানিকগঞ্জ থেকে মো. নজরুল ইসলাম।। "আমরা কণ্যা শিশু- প্রযুক্তিতে সম্মৃদ্ধ হবো,ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো"

এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে সারাদেশ ব্যাপি আজ সরকারি ও বেসরকারিভাবে জাতীয় কণ্যা শিশু দিবস পালিত হচ্ছে। 
তারই ধারাবাহিকতায় বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন বারসিক ও সিংগাইর উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থা যৌথভাবে জাতীয় কণ্যা শিশু দিবস ২০২১ পালন করছে।  

দিবসটি উপলক্ষে বাল্য বিবাহ নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধসহ সামাজিক সহিংসতা প্রতিরোধে কমিউনিটি পর্যায়ে কিশোর কিশোরী নারী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় ক্ষুদে নাট্য শিল্পী ও শিক্ষার্থীনেত্রী তাসনিম খানম উর্মি এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিংগাইর উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব আনোয়ারা খাতুন। আলোচনায় আরো অংশগ্রহণ করেন মানিকগঞ্জ জেলা খেলাঘর আসর এর সভাপতি অধ্যাপক জগদীশ চন্দ্র মালো, প্রগতিশীল ধারা প্রবীণ রাজনীতিক ও সমাজকর্মী কমরেড বংশীবদন সাহা, জাতীয় মহিলা সংস্থা কর্মকর্তা জনাব পরিমল চন্দ্র অধিকারী, নিরাভরণ থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদাত সায়েম,অঙ্কুর কিশোরী ক্লাবের সভাপতি দুর্গা রানী মন্ডল, বারসিক প্রকল্প কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম, কর্মসূচির ধারণাপত্র পাঠ করেন বারসিক প্রকল্প সহায়ক আছিয়া আক্তার ও রিনা সিকদার। 
বক্তারা কবির অমর বাণী দিয়ে শুরু করেন কাঁটা হেরি ক্ষ্যান্ত কেন কমল তুলিতে দুঃখ বিনে সুখ লাভ হয় কি মোহিতে। তারা সমাজে নারীকে ফুলের সাথে তুলনা করে বলেন। অকালে ফুল ছিরলে বাগানের সৌন্দর্য নষ্ট হয়,হাতে কাঁটা বিঁধে। তাই এই সৌন্দর্য বজায় রাখতে হলে কণ্যা শিশুকে অকালে বিয়ে দেয়া যাবে না।তাদের যত্ন করতে হবে তাহলে সমাজ ও সংসারে রত্ন মিলবেই। নারী ক্ষমতায়ীত হলে আমরা প্রযুক্তিসহ সকল কাজে সম্মৃদ্ধ হবো এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথ আরো সুগম হবে।