কুমিল্লার ঘটনা কারা ঘটিয়েছে তা জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে - তথ্যমন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনা কারা ঘটিয়েছে তা জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে - তথ্যমন্ত্রী
ছবিঃ সংগৃহীত
এম. মতিন, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।। রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগকে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে বিএনপি- জামাতসহ ধর্মান্ধ গোষ্ঠী। কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করে ফায়দা লোটটে চেয়েছিল বিএনপি- জামাত। কিন্তু বিএনপি- জামাতের সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি। সরকার কঠোর হাতে দমন করেছে।
শনিবার (১৬ অক্টোবর) নিজ নির্বাচনী এলাকা রাঙ্গুনিয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সন্মেলন এসব কথা বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। 
তিনি বলেন, কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়ে কারা দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করেছে, ঘটনার পর কারা মিছিল বের করেছে, সেই ভিডিও ফুটেজ আমাদের কাছে আছে। তারা কোন দলের সমর্থক, তারা কোন মতাদর্শের তা জনসমক্ষে আমরা সেটা প্রকাশ করা হবে।
ছাত্রলীগর নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া, জীবন ও যৌবনের উত্তাপে শুদ্ধ সংগঠন, সোনার বাংলা বিনির্মাণের কর্মী গড়ার পাঠশালা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগ নেতা বিনির্মাণের কারখানা। 
তিনি আরও বলেন, ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি সময়ের দাবিতেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। জন্মের প্রথম লগ্ন থেকেই ভাষার অধিকার, শিক্ষার অধিকার, বাঙালির স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠা, দুঃশাসনের বিরুদ্ধে গণঅভ্যুত্থান, সর্বোপরি স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনের সফল সাহসী সারথি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগ করেছেন। তিনি ছিলেন ইডেন কলেজের ভিপি। অতএব, প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কোন কাজ ছাত্রলীগ করতে পারবেনা।
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে আজ পাকিস্তান দীর্ঘশ্বাস ফেলে। মানব উন্নয়ন, সামাজিক সুচকসহ মাথাপিছু আয়ের ক্ষেত্রে আমরা ভারতকেও পেছনে ফেলেছি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই উন্নয়ন দেখে বিশ্বময় প্রশংসা করে, এটি অনেকের পছন্দ হয় না। তাই বিএনপি-জামায়াত জননেত্রী শেখ হাসিনাকে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে এখন নানা ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। 
'সরকার দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার জন্য অপচেষ্টা চালাচ্ছে' বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের এমন বক্তব্যের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবের বক্তব্যে শুধু দেশের মানুষ হাসে তা নয়, হনুমানও হাসে। তার এই বক্তব্যের মাধ্যমে প্রমাণিত হয় কুমিল্লার ঘটনার পেছনে তাদের ইন্ধন ছিল।
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এড: নুরুল আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শিমুল গুপ্তের সঞ্চালনায় এড: নুরুচ্ছাফা তালুকদার অডিটোরিয়াম হলে অনুষ্ঠিত রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু।
প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রেজাউল করিম।
সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা স্বজন কুমার তালুকদার, আবুল কাশেম চিশতী, পৌর মেয়র শাহজাহান সিকদার, নজরুল ইসলাম তালুকদার, মুহাম্মদ আলী শাহ, ডা. মোহাম্মদ সেলিম, আকতার হোসেন খাঁন, শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আ.লীগ সেক্রেটারি ইঞ্জি: শামসুল আলম তালুকদার ও গিয়াস উদ্দিন খাঁন স্বপন ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শামসুদ্দোহা সিকদার আরজু প্রমুখ।
উল্লেখ, ২০১৬ সালের ১২ মার্চ অনুষ্ঠিত সম্মেলনে এড নুরুল আলমকে সভাপতি এবং শিমুল গুপ্তকে সাধারণ সম্পাদক করে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের ৭১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। ৩ বছরের ওই কমিটি ৫ বছর সময় পার করে অবশেষে আবার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো। কাংক্ষিত এই সম্মেলনে সভাপতি পদে এবার ২৩ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে অন্তত ২৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। তবে সম্মেলনে কোন কমিটি  ঘোষণা করেনি।