কৃষিখাতকে টেকসই করতে কৃষি বিভাগ ও কৃষকের আন্ত:সম্পর্ক আরো জোরদার করতে হবে-উপপরিচালক

কৃষিখাতকে টেকসই করতে কৃষি বিভাগ ও কৃষকের আন্ত:সম্পর্ক আরো জোরদার করতে হবে-উপপরিচালক
ছবিঃ সংগৃহীত

নজরুল ইসলাম।। মানিকগঞ্জ।। ১২ আগস্ট, বৃহস্পতিবার।। কৃষি বাচাঁও কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও’  কৃষি ও কষকের অধিকার আদায়ে আসুন ঐক্যঃবদ্ধ হই’ এই ধরনের বিভিন্ন ¯েøাগানকে সামনে রেখে  আজ ১২ আগস্ট ২০২১ সকাল ১১.০০ ঘটিকা থেকে ১.০০ ঘটিকা পর্যন্ত অনলাইন মাধ্যমে জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর মানিকগঞ্জ ও বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক এর যৌথ আয়োজনে কৃষি বিভাগের সেবা পরিসেবা বিষয়ক সংলাপ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 জেলা কৃষি  উন্নয়ন কমিটির সভাপতি জনাব, করম আলী মাষ্টারের সভাপত্বিতে কৃষি মন্ত্রনালয়ধীন মানিকগঞ্জের কৃষি বিভাগের সাথে সেবা পরিসেবা বিষয়ক আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে অংশ গ্রহন করেছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ - পরিচালক কৃষিবিদ জনাব শাহ্জাহান আলী বিশ্বাস, জেলা বীজ প্রত্যয়ন অফিসার কৃষিবিদ রওশন আলম। ক্ষুদ্র, প্রান্তিক ও ভ’মিহীন কৃষকদের সমস্যা এবং সেবা ও পরিসেবা বিযয়ে কথা বলেন মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জনাব ইমতিয়াজ আলম, সিংগাইর উপজেলার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জনাব মো: টিপু সুলতান, ,ঘিওর উপজেলার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জনাব শেখ বিপুল হোসেন, হরিরামপুর উপজেলার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জনাব মো: আব্দুর গফ্ফার এবং উপ সহকারী কৃষি অফিসার রতন চন্দ্র মন্ডল ও মো: ফেরদৌস হোসেন।
 সভায় আরো  বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ মো: ইমান আলী, মাসুদ বিশ্বাস ( কৃষক গবেষক) ইব্রাহিম মিয়া, সেলিনা বেগম,সুভাষ মন্ডল,শাহীন টিটো,হযরত আলী, শরীফ হোসেন এবং বারসিক এর পরিচালক কৃষিবিদ এবিএম তৌহিদুল,আঞ্চলিক সমন্বয়কারী বিমল রায়,প্রোগ্রাম অফিসার শিমুল কুমার বিশ্বাস প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বারসিক প্রোগ্রাম অফিসার ও ডিপ্লোমা কৃষিবিদ মাসুদুর রহমান।  

জেলা বীজ প্রত্যয়ন অফিসার বলেন,বারসিকের মানস্মত মসলা বীজ উৎপাদন ও এলাকা উপযোগি ধান জাত গবেষণা কার্যক্রম এবং  জলবাযু পরিবর্তন ও ঝুকি মোকাবিলায় কৃষকের অভিযোজন কৌশল সরেজমিন পরিদর্শন করেছি,বারসিক এর কোন সদস্য মানস্মত বা প্রত্যায়িত বীজ ব্যাক্তি পর্যায়ে অথবা বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদন করতে আগ্রহী হলে মানিকগঞ্জ বীজ প্রত্যয়ন এজেন্সী এ বিষয়ে বিধি মোতাবেক সার্বিক সহযোগিতা করবে।
উপ - পরিচালক কৃষিবিদ জনাব শাহ্জাহান আলী বিশ্বাস বলেন,আজকের আয়োজন আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাথে বারসিক এর যোগযোগ আরো বাড়াতে হবে। উচ্চ মূল্যের ফসল উৎপাদনে কৃষকদের আরো আগ্রহ বাড়াতে হবে। হাটে বাজারে জৈব শাক সবজী বিক্রয় কর্ণার তৈরী করতে হবে, তবেই কৃষক লাভবান হবে। ডাল,তৈল ও মসলা জাতীয় ফসল উৎপাদনে সহজ শর্তে ঋণের বিষয়ে স্থানীয় সরকারের সুপারিশে বারসিক আমাকে তালিকা দিলে আমি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করবো। বক্তারা আরো বলেন সরকারি সেবা জনগনের মাঝে পৌছে দিতে এনজিওদের ভূমিকা আরো বারাতে হবে এবং কৃষিখাতকে টেকসই করতে কৃষি বিভাগ ও কৃষকের আন্ত:সম্পর্ক আরো জোরদার করতে হবে।