গাইবান্ধায় প্রজন্ম তরুণ সংঘের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সমাগত

গাইবান্ধায় প্রজন্ম তরুণ সংঘের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সমাগত
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের।। স্টাফ রিপোর্টার।।গাইবান্ধা, ২২ মে, শনিবার।। গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর প্রত্যন্ত গ্রাম্যাঞ্চলের তরুণদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গড়ে তোলা স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন প্রজন্ম তরুণ সংঘের প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সমাগত। ২০২০ সালের ২৩ জুন যাত্রা শুরু করে প্রথম বছরেই এলাকাবাসীর মনে সাড়া জাগানো প্রতিষ্ঠানটি শুরু ও পথচলা নিয়ে লিখেছেন সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা আল আমিন মণ্ডল আলিফ। আগামীর গৌরবোজ্জ্বল পথচলার কামনায় আসুন লেখাটি পড়ি…

মানুষের কল্যাণ করতে হলে খুব বেশি অর্থের প্রয়োজন হয় না। প্রয়োজন ভালো মন-মানসিকতার। প্রয়োজন একটি ভালো উদ্যোগের। সে জন্যই বলা হয় সৎ চিন্তা, সৎ উদ্যোগ আর সৎ চেষ্টা থাকলে মানুষের কল্যাণ সম্ভব। এমন উদ্দেশ্য নিয়েই স্বপ্নের বীজ বুনেছেন গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী থানার একঝাঁক তরুণ। মানবকল্যাণে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক, অলাভজনক ও পদবিহীন সেবামূলক সামাজিক সংগঠন প্রজন্ম তরুণ সংঘ যাত্রা শুরু করে। সময়টা ছিল ২০২০ সালের ২৩ জুন। গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার পূর্ব গোপিনাথপুর গ্রামের তরুণ আল আমিন মণ্ডল আলিফ এর মাথায় এলো দেশ ও দশের জন্য কিছু একটা করার। কী করা যায়? তাই নিয়ে এলাকার সব তরুণদের সঙ্গে আলোচনা করেন এবং সে নিজে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত করেন। সেই থেকে তানজিদ, মিলন, হাসান, ছানারুল, জিহাদ, ফিরোজ প্রজন্ম তরুণ সংঘের তৈরির উদ্যোগ নেন। শুরুতে সাত সদস্য নিয়ে সংগঠনের যাত্রা শুরু হলেও বর্তমানে এর সদস্য সংখ্যা ৩১ জন। পূর্ব গোপিনাথপুর বাজার এলাকায় সংগঠনের একটি কার্যালয় রয়েছে। এখান থেকেই মূলত তাদের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

প্রজন্ম তরুণ সংঘের প্রত্যেক সদস্য প্রতি মাসে ১০০ টাকা সংগঠনের ফান্ডে জমা দেন। তাছাড়া নতুন কেউ প্রজন্ম তরুণ সংঘের সদস্য হতে চাইলে ভর্তি ফি ১০০ টাকা জমা দিয়ে সদস্য হওয়া সম্ভব। তারা সর্বদা এলাকাবাসীর বিভিন্ন দুর্যোগের সময় অসহায়দের পাশে থাকেন এবং আর্থিক ভাবে সহযোগিতা করে থাকেন। তাদের কর্মকাণ্ডে মুগ্ধ হয়ে আরও অনেক স্বচ্ছল ধনাঢ্য ব্যক্তি সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছেন।
 
প্রজন্ম তরুণ সংঘ থেকে যেসব সেবাসমূহ পাওয়া যায় তা হলো- এলাকাবাসীর প্রয়োজনে ফ্রি ব্লাড ডোনেট করা।অর্থের অভাবে যারা পড়াশোনা করতে পারে না তাদের বইপত্র কিনে দেওয়া। ভর্তির টাকা জোগান দিয়ে স্কুল-কলেজমুখী করা। বসতহীনদের বসতঘর নির্মাণ করে দেওয়া। শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা । মসজিদ, মাদ্রাসার উন্নয়ণমূলক কাজ করা। তাছাড়া প্রতি ঈদুল ফিতরে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা, ঈদ-উল-আযহায় অসহায়দের মাঝে মাংস বিতরণ। এতিমখানার বাচ্চাদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা। এছাড়াও আরও বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে থাকে তারা।

করোনাকালে মানুষের দূরাবস্তার সময় সংগঠন থেকে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে। মাক্স বিতরণ করেছে। অসুস্থ ব্যাক্তিদের চিকিৎসা ক্ষেত্রে সহযোগিতা করেছে। বন্যার সময় বন্যাকবলিত মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে। পরিবেশ রক্ষার্থে তারা বৃক্ষরোপন করেছে।

এ বিষয়ে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আল আমিন মন্ডল আলিফ জানান, আমাদের কর্মসূচিগুলো অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। সকল স্বচ্ছল ও ধনাঢ্য ব্যাক্তিদেরকে তাদের পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করেছে। সেই সাথে তিনি প্রজন্ম তরুণ সংঘের হেল্প লাইন নাম্বার ০১৩১৯২০২৪৮০ দিয়েছে যে কোনো প্রয়োজনে কল করলে সংগঠন তারা পাশে সাধ্য মতো থাকার চেষ্টা করবে।