গোবিন্দগঞ্জে মা-মেয়েকে গণধর্ষণ মামলায় ৩ জ্বীনের বাদশার যাবজ্জীবন  

গোবিন্দগঞ্জে মা-মেয়েকে গণধর্ষণ মামলায় ৩ জ্বীনের বাদশার যাবজ্জীবন  
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের,স্টাফ রিপোর্টার।।গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে জ্বীনের বাদশা প্রতারক চক্রের পরিচয়ে চাঞ্চল্যকর মা ও মেয়ে গণধর্ষণ ও প্রতারণার ঘটনায় ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১ লাখ টাকা করে অর্থদন্ড দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২। ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আলাদতের বিচারক মো. আব্দুর রহমান এই রায় দেন।সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছে খাজা মিয়া, এমদাদুল হক ও বেলাল হোসেন । এদের মধ্যে খাজা মিয়াকে অতিরিক্ত পেনাল সেকশনে আরও ৮ বছরের সাজা প্রদান করা হয়। এছাড়া আজিজুল ইসলাম ও আসাদুল ইসলাম নামে ২ জনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফারুক আহমেদ প্রিন্স জানান, ভূক্তভোগী ২ নারী মা ও তার যুবতী মেয়ে ঢাকায় থাকতেন। জ্বীনের বাদশা পরিচয় দিয়ে অভিযুক্তরা ধর্মীয় নানা কথা ও প্রচুর ধনসম্পদের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে বিপুল অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। ২০১৮ সালের ১২মে প্রতারক চক্রটি তাদের মাজার জিয়ারত করার কথা বলে মা-মেয়েকে ঢাকা থেকে গোবিন্দগঞ্জের বালুয়াহাট বাজারে নিয়ে আসে। বিষয়টি কাউকে জানালে তাদের ক্ষতি হবে বলে ভয় দেখান প্রতারক চক্র। মধ্যরাতের পর মা ও মেয়েটিকে একটি নদীর ধারে নিয়ে গিয়ে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে টাকা পয়সা ও মোবাইল সিম কেড়ে নেয় জ্বীনের বাদশা চক্র। এরপর ভূক্তভোগী মা-মেয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ ৪ বছর পর এই রায় ঘোষনা করলো আদালত।