চট্টগ্রামে কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩

চট্টগ্রামে কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩
ছবিঃ সংগৃহীত

মোহাম্মদ হাসান।। স্টাফ রিপোর্টার।। ২৬ জুন, শনিবার।। কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনার মূল হোতা এয়াকুবসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানা, ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ২৫ জুব শুক্রবার বিকালে জানিয়েছেন বাকলিয়া থানার ওসি রুহুল আমিন।

তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিন, দুই রাউন্ড গুলি ও দুটি লম্বা কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

গ্রেফতার তিনজন হলেন বাকলিয়া থানাধীন আব্দুল লতিফহাট এলাকার মো. ইসলাম সওদাগরের ছেলে মো. এয়াকুব (৫০), বলিরহাট এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে মো. ওসমান আলী (৩৫) ও একই এলাকার মুন্সী মিয়ার ছেলে মো. মাসুদ আলম (৩৬)।

ওসি রুহুল আমিন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ঘটনার পর থেকে পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা করে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করার পর বৃহস্পতিবার জোরারগঞ্জ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রথমে ঘটনার মূল হোতা এয়াকুবকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজধানীর পল্টন থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওসমান ও মাসুদ আলমকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনায় ব্যবহৃত বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিন, দুই রাউন্ড গুলি ও দুটি কিরিচ উদ্ধার করা হয়।

গত ১১ জুন বাকলিয়া থানার কালামিয়া বাজার আব্দুল লতিফ হাটখোলা রোডের বড় মৌলভী বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে ‘বিনামূল্যে কবর দেওয়া হয়’ লিখা সাইনবোর্ড লাগাতে গেলে এয়াকুবসহ আসামিরা হামলা চালায়। ওই দিন দুই পক্ষের সংঘর্ষে চারজন গুলিবিদ্ধ ও নয়জন আহত হন।