চট্টগ্রামে চলছে কঠোর লকডাউন, ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ নিয়ে মাঠে সেনাবাহিনী 

চট্টগ্রামে চলছে কঠোর লকডাউন, ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ নিয়ে মাঠে সেনাবাহিনী 
ছবিঃ সংগৃহীত
এম. মতিন, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।। ০১ জুলাই, বৃহস্পতিবার।। 
সারাদেশের মত চট্টগ্রামেও চলছে কঠোর লকডাউন। লকডাউন বাস্তবায়নে সকাল থেকে মাঠে রয়েছে জেলা প্রশাসনের ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট। পার্শ্ববর্তী সব জেলা থেকে চট্টগ্রামকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করার লক্ষ্যে ভোর থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে নগরীর সব প্রবেশ পথ। চট্টগ্রাম জেলার অধীন সব হাইওয়েতে বসানো হয়েছে চেক পোস্ট। 
এদিকে চট্টগ্রামের আওতাধীন বিভিন্ন উপজেলায়ও চলছে কঠোর লকডাউন। এসব উপজেলাগুলোতে মাঠে ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন করছে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ। পাশাপাশি থাকছে সেনাবাহিনী, বিজিবি, আনসার ও পুলিশ সদস্যরা।
জানা যায়, অন্যান্যবার সেনাবাহিনী কাউকে গ্রেপ্তার না করলেও এবার ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ বিধানের আওতায় মাঠে গ্রেপ্তার করার সুযোগ পেয়েছে। পাশাপাশি সিএমপি ও জেলা পুলিশ ভিন্ন ভিন্ন টিমে টহল দিচ্ছে। বিষয়গুলো তদারকি করছে উর্ধতন সিনিয়র কর্মকর্তারা।
আজ বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ১০টায় নগরীর সার্কিট হাউজ থেকে একযোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা একেকজন একেক এলাকায় গিয়ে অবস্থান করতে দেখা যায়। তাদের সাথে থাকছে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা।
কঠোর লকডাউন ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করার পর গতকাল বুধবার (৩০ জুন) বিকালে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন সব বাহিনীর সাথে একটি সমন্বয় সভা করেন। এতে আগামী সাত দিনের কঠোর বিধি-নিষেধ মানাতে কর্ম পরিকল্পনা ঠিক করে দেয়া হয়।
জেলা প্রশাসকের স্টাফ অফিসার উমর ফারুক বলেন, 'আজ থেকে অপ্রয়োজনে কেউ ঘর থেকে বের হতে পারবেন না। যানবাহন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। জরুরি সেবা সংস্থার গাড়ি শুধু বের হতে পারবে। নগরীতে প্রবেশের পথগুলোতে থাকবে প্রশাসনের কঠোর কড়াকড়ি। কঠোর লকডাউন সফল করতেই মূলত আমরা মাঠে থাকছি। আমাদের সাথে মাঠে আছে সেনাবাহিনী, বিজিবিসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।'