চট্টগ্রাম শহর থেকে অপহৃত যুবককে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে উদ্ধার 

চট্টগ্রাম শহর থেকে অপহৃত যুবককে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে উদ্ধার 
ছবিঃ সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার, ১২ জুলাই।। চট্টগ্রাম শহরের উত্তর হালিশহর এলাকা থেকে অপহৃত যুবককে ১৬ দিন পর কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। 

সোমবার ( ১১ জুলাই ) রাতে উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির অভিযান চালিয়ে ভিকটিম মো. নুরুল ইসলামকে উদ্ধার করে র‍্যাব-১৫ । গত ২৪ জুন সকালে চট্টগ্রাম শহরের উত্তর হালিশহর থেকে অপহরণের শিকার হন ওই যুবক।

কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ সুত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম শহরের হালিশহর থানাধীন উত্তর হালিশহর এলাকার মো. সোলাইমান ড্রাইভারের ছেলে মো. নুরুল ইসলাম গত ২৪ জুন সকাল ১০ টায় বাড়ী থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। যথাসময়ে সে বাড়ী ফিরে না আসায় তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন পরিবারের লোকজন। তবে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। 

র‍্যাব-১৫ আরো জানায়, যুবক নুরুল ইসলাম (২৪) কে অপহরণের ৬ দিন পর তার মোবাইল ফোন থেকে তার বাবার মোবাইল ফোনে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে অপহরণকারীরা। টাকা দিতে ব্যর্থ হলে ভিকটিমকে হত্যা করার ভয়ভীতি দেখানো হয়।
গত ৮ জুলাই অপহৃত যুবকের বাবা সোলাইমান ড্রাইভার বাদী হয়ে র‍্যাব-১৫ কক্সবাজার সদর দপ্তরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের সুত্র ধরে র‍্যাব-১৫ উদ্ধার অভিযানে নামে এবং গোপনে খবর পেয়ে উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের গত ১১ জুলাই রাতে অভিযান চালায়। রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ১৬ দিনপর অপহৃত ভিকটিম নুরুল ইসলামকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এসময় অপহরণকারী চক্র র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।
র‍্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ও সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া এন্ড অপারেসন্স) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, যুবক নুরুল ইসলামকে অপহরণের পর অপহরণকারীরা তাকে উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের আটক রেখে ছিল। উদ্ধার হওয়া ভিকটিম নুরুল ইসলামকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানা তিনি।