চরফ‍্যাশন নার্সের বাসায় অবৈধ এমআর ডিএন্ডসি ও ডেলিভারি করার অভিযোগ  

চরফ‍্যাশন নার্সের বাসায় অবৈধ এমআর ডিএন্ডসি ও ডেলিভারি করার অভিযোগ  
ছবি: সংগৃহীত

মিলি সিকদার।। ভোলা।।  চরফ‍্যাশন হাসপাতালে কর্মরত জুলিয়া নামক নার্স'র বাসায় অবৈধ এমআর ডিএন্ডসি করে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শোভন বসাক সত‍্যতা স্বীকার করে বলেন আমিও  শুনেছি। 

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভপাতের জন‍্য জুলিয়া তার হাসপাতালের দেয়া বাসা নিরাপদ হিসেবে বেছে নিয়ে ভুক্তভোগীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে এ কাজ করে থাকেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক সুত্র এ তথ‍্য নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া হাসপাতালে ডিএন্ডসি  চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগীদের ফুসলিয়ে লোক লজ্জার ভয় দেখিয়ে বাসায় এমআর ও ডিএন্ডসি করান। 
হাসপাতালে প্রসুতি কোন রোগী ভর্তি হতে গেলে তার নজরে আসলে তিনি হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে তার বাসায় নিরাপদ ডেলিভারির নিশ্চয়তা দিয়ে বাসায় নিয়ে টাকার বিনিময়ে চিকিৎসা দেন। 
একটি সুত্র জানান অবৈধ গর্ভপাত আইনি জটিলতার কারনে ভুক্তভোগীরা টাকার বিনিময়ে হলেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জুলিয়ার বাসায় গর্ভপাত ঘটাচ্ছেন।
নার্স জুলিয়া বর্তমানে চক্ষু বিভাগে কর্মরত থেকে রোগীদের ওষুধ ও চশমা বিতরনে ১ শত করে টাকা নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
এ বিষয়ে নার্স জুলিয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি ডিএন্ডসির ট্রেনিং এখনও পাইনি এবং আমার যন্ত্রপাতি নাই। 
উপজেলা স্বাস্থ‍্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার শোভন বসাক বলেন,  নার্স জুলিয়ার বিরুদ্ধে  আইন বর্হিভূত  অভিযোগ শুনে আমি মৌখিক সাবধান করেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব‍্যবস্থা নেয়া হবে।