ছাত্রীকে থাপ্পড় মারার অভিযোগে, জবির দুই ছাত্র বহিষ্কার

ছাত্রীকে থাপ্পড় মারার অভিযোগে, জবির দুই ছাত্র বহিষ্কার
ছবি: সংগৃহীত
জবি প্রতিনিধি।।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এক ছাত্রীকে থাপ্পড় মেরে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করায় একই বিভাগের দুই ছাত্রকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।
(শুক্রবার) ২৪ জুন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বহিষ্কার আদেশের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বলেন, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এক ছাত্রীকে থাপ্পড় মেরে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করায় অভিযোগ প্রমানিত হাওয়ায় সাময়িকভাবে ওই একই বিভাগের দুই ছাত্রকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই দুই ছাত্র  বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ সেশনের মফিজুল্লা ও মো. খায়রুল ইসলাম।
প্রক্টর আরও জানান, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার বিষয়ে আনীত অভিযোগ সত্য প্রতীয়মান হওয়ায় ৯ জুন শৃঙ্খলা বোর্ডের ৫৯ তম সভার কার্যবিবরণীর ১৬ নং সিদ্ধান্ত যা ১৩ জুন অনুষ্ঠিত হওয়া ৮৮ তম সিন্ডিকেটে ৫ নং সিদ্ধান্তে সাময়িক বহিষ্কার করা হয় তাদের। সাময়িক বহিষ্কার হওয়া দুই শিক্ষার্থীকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না, তা আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে জানানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, গত ২০ মার্চ ওই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ভলিবলের অনুশীলনের জন্য আসেন। ওই ছাত্রীর সঙ্গে ক্লাসের সিআর নিয়ে একটি সমস্যা ছিল। বিষয়টি নিয়ে তাঁকে সোহেল, নাইম, খাইরুল, রনি অপমানজনক কথাবার্তা বলে। পরবর্তীতে তারা ভুক্তভোগী ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে আসতে বলে। পরে ওই ছাত্রী সেখান থেকে চলে আসার সময় খায়রুল বাজে কথা বলে বাধা দেয় এবং মফিজুল্লা থাপ্পড় মারে। এ ঘটনায় ওই ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী প্রক্টর অফিসে লিখিত অভিযোগ দেন।