ছেলে মাদকাসক্ত, ফেরাতে না পরিবারের সকলে মিলে হত্যা করে মাটি চাপা

ছেলে মাদকাসক্ত, ফেরাতে না পরিবারের সকলে মিলে হত্যা করে মাটি চাপা
ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালী বেগমগঞ্জ উপজেলায় হত্যা করে লাশ মাটিচাপা দেয়ার তিনদিন পর নূর হোসেন শাকিল (২৫) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের বাবা ও ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার ৯নং মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের লালপুর এলাকার হাজী বাড়ির পুকুর পাড় থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা হলো, নিহতের বাবা বাবুল হোসেন ও ছোট ভাই এমাম হোসেন।

এর আগে, গত শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে পরিবারের সদস্যরা একত্রিত হয়ে শাকিলকে হত্যা করে লাশ বসতঘর সংলগ্ন পুকুর পাড়ে মাটিচাপা দিয়ে রাখে। বুধবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো.শহীদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, গত শনিবার পারিবারিক কলহের জেরে শাকিলকে পরিবারের সদস্যরা একত্রিত হয়ে হত্যা করে। এরপর বসতঘর সংলগ্ন পুকুর পাড়ে নিহতের লাশ দাফন ছাড়া মাটিচাপা দিয়ে রাখে। বুধবার বিকেলে স্থানীয় দুই সংবাদকর্মীর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পায়। তারপর পুলিশ মাটি খুঁড়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, নিহত শাকিল মাদকাসক্ত ছিল এবং প্রায়ই নানা কারণে তার পরিবারের সদস্যদের ওপর অত্যাচার করতো। এসব ঘটনার জেরে পরিবারে কলহ দেখা দেয়। একপর্যায়ে ওই কলহের জেরেই পরিবারের সদস্যরা তাকে হত্যা করে লাশ মাটিচাপা দিয়ে রাখে।

পুলিশ সুপার জানান, নিহত শাকিলের বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মারামারি ও মাদকের ২টি মামলা রয়েছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় মামলার বিষয়টি প্রকৃয়াধীন আছেন বলেও জানান তিনি।