ঝালকাঠিতে পাওনা টাকা চাওয়ার পিতা-পুত্রকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:ঝালকাঠিতে পাওনা টাকা চাওয়ার পিতা-পুত্রকে
পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেছে বখাটে প্রিন্স খান, পাওনা টাকা চাওয়ার অপরাধে ক্ষুদ্র
ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া (৫৫) ও তার পুত্র ইয়ামিন (১৯) কে মারধর কুপিয়ে জখম
করেছে স্থানীয় বখাটে যুবক প্রিন্স খান (২৮)। শুক্রবার (২৪ জুন) সকাল ১১টা
ও বিকাল ৪টায় ঝালকাঠি শহরের পালবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুত্বর আহত
ইয়ামিনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ
বিষয়ে ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় হামলাকারী বখাটে মৃত
আশ্রাফ আলী খানের পুত্র প্রিন্স খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে।
     ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার পরিবার ও অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, পালবাড়ী
এলাকার ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার চা-বিস্কুটের দোকান থেকে বিভিন্ন সময়
স্থানীয় বখাটে যুবক প্রিন্স খান মালামাল বাকীতে নিতো। শুক্রবার প্রিন্স
খান পাওনা টাকা না দিয়ে পুনরায় বাকীতে নিতে গেলে সোলেমান মিয়া বাকীতে
মালামাল দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রিন্স খান দোকানের
মধ্যে ডুকে সোলেমান মিয়াকে অকথ্য গালাগাল করে ও চর-থাপ্পর মেরে চলে যায়।
    এ ঘটনা জানতে পেরে ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার পুত্র ইয়ামিন বিকাল ৪টার
দিকে বখাটে প্রিন্সকে দেখতে পেয়ে তার বাবাকে মারধরের কারন জানতে চায়।
এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বখাটে প্রিন্স তার সাথে থাকা ধাড়ালো
ছ্যানা দিয়ে ইয়ামিনকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার
করে আহত ইয়ামিনকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। বখাটে প্রিন্স খান
কিছু দিন বিদেশে থাকার পর বছরখানেক পূর্বে দেশে ফিরে বখাটে একটি চক্রের
সাথে মিশে নেশাগ্রস্থ হয়ে পরে বলে স্থানীয় বাসিন্ধা জানায়।
    এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানা পুলিশ সূত্রে প্রকাশ, ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া
লিখিত অভিযোগ প্রদান করলে বিকালেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে
প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য গ্রহন করেছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত
মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে  জানাগেছে। পাওনা টাকা চাওয়ার অপরাধে ক্ষুদ্র

ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া (৫৫) ও তার পুত্র ইয়ামিন (১৯) কে মারধর কুপিয়ে জখম
করেছে স্থানীয় বখাটে যুবক প্রিন্স খান (২৮)। শুক্রবার (২৪ জুন) সকাল ১১টা
ও বিকাল ৪টায় ঝালকাঠি শহরের পালবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুত্বর আহত
ইয়ামিনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ
বিষয়ে ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় হামলাকারী বখাটে মৃত
আশ্রাফ আলী খানের পুত্র প্রিন্স খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে।
     ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার পরিবার ও অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, পালবাড়ী
এলাকার ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার চা-বিস্কুটের দোকান থেকে বিভিন্ন সময়
স্থানীয় বখাটে যুবক প্রিন্স খান মালামাল বাকীতে নিতো। শুক্রবার প্রিন্স
খান পাওনা টাকা না দিয়ে পুনরায় বাকীতে নিতে গেলে সোলেমান মিয়া বাকীতে
মালামাল দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রিন্স খান দোকানের
মধ্যে ডুকে সোলেমান মিয়াকে অকথ্য গালাগাল করে ও চর-থাপ্পর মেরে চলে যায়।
    এ ঘটনা জানতে পেরে ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়ার পুত্র ইয়ামিন বিকাল ৪টার
দিকে বখাটে প্রিন্সকে দেখতে পেয়ে তার বাবাকে মারধরের কারন জানতে চায়।
এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বখাটে প্রিন্স তার সাথে থাকা ধাড়ালো
ছ্যানা দিয়ে ইয়ামিনকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার
করে আহত ইয়ামিনকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। বখাটে প্রিন্স খান
কিছু দিন বিদেশে থাকার পর বছরখানেক পূর্বে দেশে ফিরে বখাটে একটি চক্রের
সাথে মিশে নেশাগ্রস্থ হয়ে পরে বলে স্থানীয় বাসিন্ধা জানায়।
    এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানা পুলিশ সূত্রে প্রকাশ, ব্যবসায়ী সোলেমান মিয়া
লিখিত অভিযোগ প্রদান করলে বিকালেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে
প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য গ্রহন করেছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত
মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে  জানাগেছে।