ঝালকাঠির রাজাপুরে অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকায় বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক রিমা চাকুরীচ্যুত

ঝালকাঠির রাজাপুরে অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকায় বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক রিমা চাকুরীচ্যুত
ছবি: সংগৃহীত

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি।। ফৌজদারী মামলায় চার্জশীটভূক্ত, চাকুরী দেয়া ও বিদেশে পাঠানোর নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে রাজাপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আইজিএ প্রকল্পের বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক চন্দ্রিমা আক্তার রিমাকে চাকুরীচ্যুত করা হয়েছে। ২১ জুলাই আইজিএ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মোঃ তরিকুল আলম স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাকে চাকুরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে মর্মে অফিস আদেশ জারী করেছেন।

    অফিস আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে, রাজাপুর উপজেলার নৈকাঠি গ্রামের মোঃ শহিদুল ইসলামের মেয়ে শারমিন আক্তারকে বিদেশে পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে গত ২০ /৫/২০২০ তারিখে বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক চন্দ্রিমা আক্তার রিমা ৫লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু এক বছরেও প্রশিক্ষক রিমার শহিদুল ইসলামের মেয়েকে বিদেশে না পাঠিয়ে নানারকম তালবাহানা ও ছলচাতুরী করতে থাকে।

    এক পর্যায়ে টাকা ফেরত চাইলে গত ১১/৫/২০২১ সকালে রিমা প্রায় ২০/২৫ জন সহযোগী নিয়ে শহিদুল ইসলামের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করার কারনে শহীদুল ইসলাম থানায় মামলা দায়ের করেন। রাজাপুর থানার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মামুন উক্ত মামলায় চন্দ্রিমা আক্তার রিমা (২৮) সহ অন্যান্য আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে চার্জশিট প্রদান করেন।

    এ ছাড়া চন্দ্রিমা আক্তার রিমার বিরুদ্ধে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আইজিএ প্রকল্পের বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক পদে চাকুরির প্রলোভন দিয়ে গত ২৩/৩/২০২০ইং তারিখ রাজাপুর উপজেলা নৈকাঠি গ্রামের রমজান আলীর স্ত্রী শিরিন বেগমের কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা, গত ১৪/৪/২০২২ইং তারিখ উপজেলার জীবনদাসকাঠি গ্রামের ফারুখ মিয়ার স্ত্রী লাকি বেগমকে একই পদে চাকুরী দেয়ার নামে ১লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় বলে অভিযোগ পান।

    উভয়কে টাকা নিয়ে এক মাসের মধ্যে চাকুরী দেয়ার কথা বললেও পরবর্তীতে চাকুরী না দিয়ে আরো টাকা দাবী করে নানারকম হুমকি ধমকি দেন।  এসব অনিয়ম ও ফৌজদারী মামলায় চার্জশীটভূক্ত হওয়ার কারনে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পত্রের বিধি ৫ অনুসারে তাকে বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন অফিস আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে। 

   রাজাপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আইজিএ প্রকল্পের বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক পদ থেকে চাকুরীচ্যুত চন্দ্রিমা আক্তার রিমা উপজেলার তালিকাভূক্ত রাজাকার মৃত আবদুল হামেদ জমাদ্দারের নাতনী ও নৈকাঠি মোঃ মিল্লাত হোসেন জমাদ্দারের কন্যা।