ঝালকাঠি ও নলছিটিতে পানিতে ডুবে তিন শিশু-কিশোরের মৃত্যু

ঝালকাঠি ও নলছিটিতে পানিতে ডুবে তিন শিশু-কিশোরের মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি।। ঝালকাঠির নলছিটি ও রাজাপুরে পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে তিন শিশু-কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুর সারে ১২টা থেকে
১টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে নিজ নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
রাজাপুরে নিহত দুই শিশু হলো, উপজেলার বড়ইয়া ইউনিয়নের ভাতকাঠি এলাকার মো.নজরুল হাওলাদারের এক বছর তিন মাস বয়সী ছেলে মো. ইয়ামিন। এবং গালুয়া
ইউনিয়নের গালুয়া দুর্গাপুর এলাকার মো. বাহাদুর খলিফার এক বছর চার মাস বয়সী ছেলে মো. ইয়াসিন।
ইয়ামিনের চাচা মো. আল-আমিন জানায়, বাচ্চাটিকে সাথে নিয়ে তার মা শাহনাজ বেগম রান্না করছিল। বাচ্চাটি খেলতে খেলতে বাহিরে চলেযায়। হঠাৎ ইয়ামিনকে
না পেয়ে খোজাখুজি শুরু করলে রান্না ঘরের পাশের পুকুরের পানিতে ভাসতে দেখে।প্রতিবেশিরা শিশুটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে
যায়।
অন্যদিকে ইয়াসিনের দাদা আব্দুস ছালাম জানায়, ইয়াসিনকে নিয়ে তার মা ছনিয়া বেগম বসতঘরেই ছিলো। ইয়াসিন খেলা করতে করতে তার মায়ের চোখের আড়ালে চলে যায়। পরে ইয়াসিনকে ঘরের পাশের খালের পানিতে ভাসতে দেখে পরিবারের লোকজন শিশুটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।  উপজেলা
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশু ইয়ামিন ও ইয়াসিনকে মৃত ঘোষনা করেন।
শাকিলের প্রতিবেশী মাষ্টার বলেন, নলছিটি উপজেলার উত্তর রানাপাশা তৈয়ব আলী খানের পুত্র ৯বম শ্রেনীর ছাত্র শাকিল খান দুপুরে বাড়ির পার্শ্বে পুকুরের পানিতে পড়ে গেলে তাকে অনেক খোজাখুজি করে তিন ঘন্টা পর পানি থেকে তাকে মৃত্যু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। সে মৃগী রোগী ছিল।
রাজাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায়  নলছিটি থানা অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, শিশু দুটির পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই তাদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।