টেকনাফ ও উখিয়ায় পাহাড় ধ্বসে ২ রোহিঙ্গা নিহত

টেকনাফ ও উখিয়ায় পাহাড় ধ্বসে ২ রোহিঙ্গা নিহত
ছবিঃ সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার, ৫ জুন।।কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধ্বসে এক নারীসহ দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। শনিবার (৫ জুন) সকালে ও দুপুরে প্রবল বর্ষণের সময় এই পাহাড় ধ্বসের ঘটনা ঘটেছে।

নিহত দুই রোহিঙ্গা হলেন-উখিয়ার বালুখালী ময়নারঘোনা ১২ নাম্বার ক্যাম্পের রফিক উল্লাহ (৩২) এবং টেকনাফের হোয়াইক্ষ্যং ইউনিয়নের চাকমারকুল ২১ নাম্বার ক্যাম্পের নুর হাসিনা (২০)।
নিহত রফিক  উল্লাহ (৩২) ৭ নাম্বার জে ব্লকের অছিউর রহমানের ছেলে ও অপরজন টেকনাফ চাকমারকুল ২১ নাম্বার ক্যাম্পের ব্লক এ-এর ১৮ নাম্বার বাড়ির শাকের আহমদের স্ত্রী। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ সামছু-দ্দৌজা নয়ন বলেন, 'পাহাড় ধসের ঘটনায় মারা যাওয়া রফিক উল্লাহর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার দুপুর একটার দিকে পাহাড়ের মাটি কাটতে গিয়ে রফিক উল্লাহ মাটিতে চাপা পড়ে।'

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরও জানান, হোয়াইক্ষ্যং ইউনিয়নের চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শনিবার সকাল ১০টার দিকে অতি বর্ষণে পাহাড় ধসে রোহিঙ্গা নারী নুর হাসিনা মাটি চাপা পড়ে। তাকে উদ্ধার করে ক্যাম্পের সেভ দ্য চিলড্রেন পরিচালিত হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। 'আইনগত প্রক্রিয়া শেষ করে নিহত রোহিঙ্গাদের মরদেহ তাদের আত্মীয়-স্বজনদেরকে কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।'
উল্লেখ্য-প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে পাহাড় ধ্বসে হতাহতের ঘটনা ঘটে আসছে। টেকনাফ ও উখিয়ায় প্রায় ১২ লাখ রোহিঙ্গার বসবাস। 
এই ১২ লাখ রোহিঙ্গা সকলেই ঝুঁকিপূর্ণ বসবাস করছে।
তবে এদের মধ্যে চাকমারকুলে ১ লাখ ও বালুখালীতে ১ লাখসহ ২ লাখ রোহিঙ্গা চরম ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাস করছে।