টেকনাফে জেলের বসতবাড়িতে হামলা ভাংচুরও বাগানের সুপারী গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ

টেকনাফে জেলের বসতবাড়িতে হামলা ভাংচুরও বাগানের সুপারী গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ
ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজার প্রতিনিধি,২৬ জুন।। কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের জাহাজ পুরা ০৬ নং ওয়ার্ডের এক জেলের বসতবাড়ির উপর হামলা করে বাড়ী ভাংচুর ও সুপারী বাগানের বড় গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (২৬ জুন) সকাল আনুমানিক ৯ টায় টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের জাহাজপুরা এলাকার মৃত ফরিদ হোসেনের ছেলে বশির আহমেদ(৪৫) এর বসতবাড়ীতে সন্ত্রাসী দারুসসালাম (৩০) প্রকাশ মনজুর বাহিনী এ ঘটনা ঘটায়।এ ব্যাপারে বশির আহমদ স্হানীয় বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ বরাবর লিখিত একটি অভিযোগ দায়ের করেন।সূত্রে জানা যায়,বশির আহমদের স্ত্রী শাহেনা আক্তার(৩৫) বসতবাড়ির বাগানের জমিতে মরিচ ক্ষেতে কাজ করতে গেলে পূর্বে পরিকল্পিতভাবে দা,লাঠি নিয়ে শাহেনা আক্তারের উপর হামলা করে দারুসসালাম প্রকাশ মনজুর।শাহেনা কোন রকম প্রাণ বাঁচিয়ে বাড়ীতে ঢুকে পড়লে সন্ত্রাসী দারুসসালাম প্রকাশ মনজুর,নুর আলমের স্ত্রী বাহারু(৪০),মাদুর স্ত্রী সাবু(৩০),আশরাফ মিয়ার ছেলে নুর আলম(৩০),ফোরকান,কালা মিয়ার ছেলে আশরাফ মিয়া(৬৫) বশির আহমদের বসতবাড়ী ভাংচুর ও বাগানের আনুমানিক ১০-১২ টি সুপারী গাছ কেটে দেয়।এবং দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে বশিরের বসতবাড়ীতে হামলা চালায়।বসতবাড়ীর বেড়া ভাংচুর ও সুপারী গাছ কেটে দেওয়ার অর্ধলক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান বশির।স্হানীয়রা জানান,বশির আহমদ একজন সাদাসিধে নিরহ লোক।জেলে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।তার ছেলেরা সকলে স্কুলে কলেজে পড়ালেখা করে।বসতবাড়ি ভাংচুর ও সুপারী গাছ কেটে দেওয়া খুবই অন্যায় কাজ।এসব ন্যাক্কারজনক অপরাধীদের শাস্তি হওয়ার দরকার বলে জানান তারা।এ ব্যাপারে বাহারছরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ জানান, একটি অভিযোগ পেয়েছি।পুলিশ পাঠানো হয়েছে।খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।