টেকনাফে ১৩ টি স্বর্ণের বার উদ্ধার

টেকনাফে ১৩ টি স্বর্ণের বার উদ্ধার
ছবি: সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার।।কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দর সংলগ্ন বরইতলী এলাকা থেকে কোস্ট গার্ড টেকনাফ শাখায় কর্মরত লে: কমান্ডার আশিক আহাম্মেদ’র নেতৃত্বে প্রায় দুই কোটি টাকা মুল্যের ১৩টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার

(২৫ সেপ্টেম্বর)সকাল ১০ টার দিকে উক্ত অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পুর্ব জোন’র মিডিয়া কর্মকর্তা খন্দকার মুনিফ তর্কি কমান্ডার বিএ।
এদিকে অভিযানের বিষয়ে বিস্তারিত জানানোর জন্য একই দিন দুপুর ২টার দিকে অভিযানিক দলের প্রধান লে: কমান্ডার আশিক আহাম্মেদ সংবাদ সম্মেলন মাধ্যমে সাংবাদিকদের জানান,গোপন সংবাদের তথ্য অনুযায়ী ২৫ সেপ্টেম্বর (রবিবার) গভীর রাত ২টার দিকে টেকনাফ স্থলবন্দর সংলগ্ন বরইতলী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করার সময় বন্দর সংলগ্ন সড়কের পাশে মাথার উপরে একটি বস্তা থাকা সন্দেহজনক এক ব্যক্তিকে দেখতে পায়।কোস্ট গার্ড’র অভিযানিক দল উক্ত ব্যাক্তিকে দাঁড়ানোর জন্য সংকেত দেয়। তবে উক্ত ব্যাক্তি কোস্ট গার্ড দলের উপস্থিতি বুঝতে পেরে মাথার উপর থাকা বস্তাটি পেলে দিয়ে রাতের অন্ধকারে কৌশলে সড়কের পাশে পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়।
এরপর অভিযানিক দল বস্তাটি তল্লাশী করে বস্তার ভিতরে থাকা বেশ কিছু বার্মিজ গুড়ের ভিতরে অভিনব কায়দায় লুকানো ১৩টি স্বর্ণের বার জব্দ করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের ওজন ২১৫৯.৪০ গ্রাম হবে বলেও জানান তিনি।
প্রেস ব্রিফিং’এ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান, টেকনাফ স্থল বন্দরে মিয়ানমার থেকপ আসা কাঠসহ বিভিন্ন পণ্য বোঝাই ট্রলারের মাঝিরা বৈধ ব্যবসার আড়ালে কিছু মুখোশদারী অবৈধ ব্যবসায়ী অপকর্মে জড়িত ট্রলারের মাঝিদের সাথে আঁতাত করে মাদক ও স্বর্ণ পাচার চালিয়ে যাচ্ছে।
তিনি বলেন, ভদ্রতার আড়ালে থাকা স্বর্ণ পাচারসহ চোরা কারবারে জড়িত অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওয়তাই নিয়ে আসার জন্য কোস্ট গার্ড সদস্যদের চলমান এই অভিযান অব্যাহত আছে এবং থাকবে।