ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়ার ব্যবসায়ি মমিনের মৃত্যু নিয়ে রহস্য! 

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়ার ব্যবসায়ি মমিনের মৃত্যু নিয়ে রহস্য! 
ছবিঃ সংগৃহীত

বিকাশ রায় চৌধুরী,ঠাকুরগাঁও।। ২৬ এপ্রিল, সোমবার।। সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের কিশমত শুখানপুকুরী গ্রামের ব্যবসায়ি মমিন (৩০) এর মৃত্যু হয়। রোববার রাতে সে মারা গেলে মৃত্যু নিয়ে তৈরী হয় রহস্য। তিনি পঞ্চগড় জেলার বোদা বাজারে মিষ্টির দোকানের মালিক ছিলেন। তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে প্রেরন করা হয়। 

মমিনের পিতা আব্দুল জলিল বলেন, গত বুধবার মমিনের দোকানের কর্মচারী সুজিত কুমার সরকারের সাথে দোকানের ছানা চুরিকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি ও বাকবিতন্ডা পরে মারপিটের ঘটনা ঘটে। 
এ সময় সুজিত কুমার সরকার বহিরাগত লোকজন নিয়ে মমিনকে বেধরক মারপিট করে বিষয়টি কাউকে না জানাতে শাসিয়ে দেয়। মারপিটের ঘটনাটি নিয়ে বোদা বাজার বনিক সমিতির মধ্যস্থতায় বৈঠক হলে ১৫ দিনের মধ্যে মমিনের জামানতের টাকা ফেলত সাপেক্ষে ঘর ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু রোববার মমিন অসুস্থ হয়ে পরলে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নেন। পরে বাসায় ফিরে গেলে গুরতর অসুস্থ অবস্থায় রোববার সন্ধায় সে মারা যায়। মমিনের মৃত্যুর জন্য পার্শ্ববর্তী জেলার বোদা উপজেলার বগুলাডাঙ্গী হলপাড়া হাজীপুর গ্রামের সুকুমার সরকারের ছেলে সুজিত কুমার সাকারের মারপিটকেই দায়ি করছেন তিনি। 
এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও সদর থানার এসআই রবিউল ইসলাম জানান, বিষয়টি জানার পরপরই মমিনের বাসায় গিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়। সুরতাল রিপোর্ট তৈরী করে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়। তিনি বলেন, মমিনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চি‎‎‎হ্ন রয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে।