ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাস্তির অনশন

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাস্তির অনশন
ছবি: সংগৃহীত

জীবন হক।। ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি।। ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে অনশনে বসেছে প্রেমিকা ভাস্তি। এনিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে এলাকাজুড়ে।

ঘটনাটি ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া থানাধীন কাশলগাঁও ডাঙ্গিপাড়া গ্রামে। প্রেমিক হাসান(২৪) প্রেমিকার সম্পর্কে চাচা। প্রেমিকা আব্দুর রহমান রুহিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। 

শনিবার(৬ আগষ্ট) রাতে চাচার বাড়িতে অবস্থান নেন প্রেমিকা।

প্রেমিকা জানান, দীর্ঘ তিন বছর থেকে তাদের ভালোবাসার সম্পর্কের মধ‌্যে কয়েকবার শারীরিক সম্পর্কও হয়েছে। তবে চাচা হাসান তাকে বিয়ে করতে রাজি হচ্ছেনা। তাই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকা অদ‌্যরাত ০৩:০০ টায় প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান শুরু করে। তিনি আরো বলেন হাসানকে না পেয়ে আত্মহত‌্যা করবে বলে নিশ্চিত করেন।

প্রেমিকার পিতা আব্দুর রহমান জানান, যেদিন ঘটনা ঘটে সেদিন আমি বাড়িতে ছিলাম না। তাছাড়াও তাদের সম্পর্ক মেনে নেওয়ার মত নয়। আমি আমার মেয়েকে আনতে গিয়েছিলাম সে আমার সাথে আসেনি। আমার মেয়ে বলে আমি ও আমার স্ত্রী নাকি ওর বাবা মা নয়। আমি একায় এর কোন সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না সকলেই বসে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।

আমার মেয়ের কেবল নবম শ্রেণিতে পড়াশোনা করতেছে বিয়ের বয়স হয়নি এখনো। ছেলের সাথে সম্পর্ক টা ঠিক না আমাদের। ছেলে আমার চাচাতো ভাই হবে। আমার মেয়ের সম্পর্কে চাচা হবে। তাই এটা কেমন করে সম্ভব। তার পরেও আমরা বসে আলোচনার মাধ‌্যমে সিদ্ধান্ত নিব।

এ বিষয় প্রেমিক হাসানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে সে সংবাদ মাধ‌্যমের সাথে কথা বলতে রাজি হয়নি।

এ বিষয়ে রুহিয়া পশ্চিম ইউপি চেয়ারম‌্যান অনিল কুমার সেন বলেন, ঘটনাটি শুধু শুনেছি। ঘটনাস্থলে গিয়ে বিস্তারিত জানতে পারবো।

এই বিষয়ো রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, এই বিষয়ে এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিবে পুলিশ।