ডিবি পরিচয়ে  ছিনতাইয়ের অভিযোগে  নরসিংদীতে ৪ জন গ্রেপ্তার

ডিবি পরিচয়ে  ছিনতাইয়ের অভিযোগে  নরসিংদীতে ৪ জন গ্রেপ্তার

হলধর দাস, নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদীতে ডিবি পরিচয়ে এক ব্যক্তিকে বাস থেকে নামিয়ে মোবাইল ফোন (আইফোন -৬) ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। রবিবার নরসিংদীর পৃথক এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে জেলা পুলিশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।
এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে নরসিংদী সদরের শীলমান্দি এলাকায় এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। পরে ২০ সেপ্টেম্বর ছিনতাইয়ের শিকার ব্যক্তি সদর মডেল থানায় মামলা করেন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, নরসিংদীর চিনিশপুর এলাকার আসাদুজ্জামানের পুত্র মো: রানা (৩৫), ভেলানগর এলাকার আ: সোবহানের পুত্র কামরুল ইসলাম (২৫), বানিয়াছল এলাকার সানু মিয়ার ছেলে রাতুল মিয়া (২৩) এবং ব্রাক্ষণবাড়িয়ার নাসিরনগর থানার বলাকোট এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে বর্তমানে চিনিশপুরের বাসিন্দা আলমগীর হোসেন (৩০)।
পুলিশের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে থেকে জানানো হয়, গত ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে গাজীপুরের কালীগঞ্জ এলাকার এরশাদ আলী নামে এক ব্যক্তি কক্সবাজার যাওয়ার উদ্দেশ্যে কালীগঞ্জ থেকে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনের দিকে মিনিবাসে করে রওনা দেয়। বাসটি সদর উপজেলার দক্ষিন শিলমান্দি এলাকায় পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা চার ব্যক্তি নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয়ে মিনিবাস থেকে এরশাদ আলীকে নামায়। এরপর নির্জন স্থানে নিয়ে তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে নগদ টাকা ও আইফোন ছিনিয়ে নেয়। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী এরশাদ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। গোয়েন্দা পুলিশ মামলাটির তদন্তভার পেয়ে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় আসামীদের শনাক্ত ও অবস্থান নিশ্চিত হয়। পরে অভিযান চালিয়ে ভেলানগর এলাকা থেকে অভিযুক্ত মো. রানা, মাধবদী থানাধীন শান্তির বাজার হতে কামরুল ইসলাম এবং সদরের কান্দাপাড়া এলাকা থেকে রাতুল মিয়া ও শিবপুরের কারারচর এলাকা থেকে আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করে।
মামলার বাদী এরশাদ আলী মুঠোফোনে জানান, ডিবি পরিচয়ে তাকে বাস থেকে নামিয়ে মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনতাইয়ের পর গত ২০ সেপ্টেম্বর অজ্ঞাত আসামি করে সদর মডেল থানায় মামলা করেন। পরে গোয়েন্দা পুলিশ মামলার দায়িত্ব পেয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করলে তিনি আসামীদের শনাক্ত করেন।
নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক সাগর বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের দখল থেকে ছিনতাই হওয়া ফোন, ছিনিয়ে নেওয়া নগদ টাকা ও এটিএম কার্ড হতে উত্তোলিত টাকা জব্দ করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা সংঘবদ্ধভাবে বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজি ও বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিল। গ্রেপ্তারের পর সোমবার তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে এর আগেও বিভিন্ন মামলা রয়েছে।