ডিমলায় জমির সীমানা বিরোধে মামার হাতে ভাগ্নে খুনের চার খুনি র‌্যাবের হাতে আটক

ডিমলায় জমির সীমানা বিরোধে মামার হাতে ভাগ্নে খুনের চার খুনি র‌্যাবের হাতে আটক

স্টাফ রিপোর্টার।। নীলফামারীর ডিমলার পূর্ব ছাতনাই বালাপাড়া গ্রামে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধে আপন মামার হাতে ভাগ্নে খুনের ঘটনায় চার আসামীকে পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে রংপুর র‌্যাব -১৩।

সোমবার(২৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১ টায় রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড কার্যালয়ে  র‌্যাব-১৩ সংবাদিকদের এই তথ্য জানান।

গ্রেফকারকৃতরা হলেন- শের আলী ওরফে হানিফ, ফকির উদ্দিন, সুরিতা বেগম ও মালেকা বেগম।

র‌্যাব -১৩ কর্মকর্তা (উপ- অধিনায়ক) মেজর সৈয়দ মহিদুল ইসলাম জানান, জমির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে শের আলীর সঙ্গে তার ভগ্নপতি মনোয়ার হোসেন ও ভাগ্নে খালেদ মাসুমের বিরোধ চলছিল।

গত ২০ জুলাই সকালে ছাতনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ উভয়কে ডেকে সালিশের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করেন। সালিশ শেষে উভয় পক্ষ বাড়ি ফেরার পথে ওই ইউনিয়নের ফেডারেশন বাজার এলাকায় পৌছালে দুই পক্ষের মধ্যে ফের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আব্দুল ওয়াহেদ চৌধুরীর নির্দেশে ফকির উদ্দিন ও অন্যান্য আসামী খালেদ মাসুমকে ঘেরাও করে পেটাতে থাকে। এক পর্যায়ে শের আলী লাঠি দিয়ে খালেদ মাসুদকে আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

র‌্যাব -১৩কর্মকর্তা মহিদুল বলেন, ওই ঘটনার দিনই খালেদ মাসুমের বাবা মনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ৬ জনের নামে একটি হত্যা মামলা করেন।

তিনি বলেন, গ্রেফতার হওয়া প্রধান আসামী শের আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ডিমলায় থানায় হস্তান্তর করা হবে।