দক্ষিণ সুরমায় ২হাজার পরিবার পাচ্ছে  জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের  রমজান খাদ্যসামগ্রী

দক্ষিণ সুরমায় ২হাজার পরিবার পাচ্ছে  জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের  রমজান খাদ্যসামগ্রী
ছবি: সংগৃহীত

সিলেট প্রতিনিধি।।  ২৬ এপ্রিল, সোমবার।। দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ২হাজার অসহায় গরীব পরিবার পাচ্ছে জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের  রমজান খাদ্যসামগ্রী। ২৪ এপ্রিল শনিবার সকালে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার মোগলাবাজার ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কান্দিয়ারচর গ্রামে ও ২নং ওয়ার্ডের হাজী মোহাম্মদ রাজা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।
জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রধান পৃষ্ঠপোষক লন্ডন প্রবাসী আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ লাল মিয়া ও উনার সহধর্মিনী লন্ডন প্রবাসী মহিয়সী নারী রাবেয়া তাহেরা মসজিদ এর অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,  ট্রাস্টের উপদেষ্টা সানাওর আলী সোনা মিয়া, ভাইস প্রেসিডেন্ট এনামুল কবির, নির্বাহী পরিচালক শাহীন আহমদ, ট্রাস্টের নির্বাহী সদস্য আপ্তাব উদ্দিন, শাহাব উদ্দিন শিহাব।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুবনেতা হেলাল আহমদ, সিলেট জেলা ফুটবল দলের গোলকিপার আজিজ রহমান,দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাব সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম ইমরান, দপ্তর ও পাঠাগার সম্পাদক শরীফ আহমদ, সমাজকর্মী রুহুল আহমদ, ফারুক মাহমুদ মইন, সাহাব উদ্দিন, রুবেল আহমদ, মানিক মিয়া, আব্দুল মোমিন ও ইবাদুর রহমান প্রমুখ।
রবিবার সকালে উপজেলার মোগলাবাজার ইউনিয়নের খেলার মাঠ ও বারইগ্রাম মাদরাসা মাঠে জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে রমজান খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ট্রাস্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট এনামুল কবির, নির্বাহী পরিচালক শাহীন আহমদ, সদস্য অধ্যাপক মুহিবুর রহমান, বারইগ্রাম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা নুরুল ইসলাম, সাবেক মেম্বার নুরুল ইসলাম পংকি, বশির আহমদ বাবুল, আফতাব উদ্দিন, যুবনেতা মঈনুল ইসলাম মঞ্জু, শাহাব উদ্দিন সিহাব, আব্দুল জব্বার, আজিজ রহমান, শাহ রুম্মানুল হক প্রমুখ। 
জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট এর নির্বাহী পরিচালক শাহীন আহমদ বলেন, ২০০১ সাল থেকে মানবতার কল্যাণে নিবেদিতভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। ২০০৯ সালে মোগলাবাজারে ট্রাস্ট পরিচালনা কমিটি গঠন করে অসংখ্য সামাজিক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।  প্রতি বছরের ন্যায় এবারও দক্ষিণ সুরমার ১০টি ইউনিয়নে ধারাবাহিকভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে, চাল ৮কেজি, আলু ৫ কেজি, পেঁয়াজ ২কেজি, তেল ১লিটার,  ছোলা ১কেজি, লবন ১কেজি,  খেজুর ১কেজি, ডাল ১কেজি সহ মোট ২০ কেজি।