নলছিটিতে জমি নিয়ে বিরোধে কুপিয়ে যুবকের হাত কর্তন। দৈনিক আজকাল বাংলা।

নলছিটিতে জমি নিয়ে বিরোধে কুপিয়ে যুবকের হাত কর্তন। দৈনিক আজকাল বাংলা।
ছবিঃ সংগৃহীত

মানিক হাওলাদার স্টাফ রিপোর্টার।। ১১ আগস্ট, বুধবার।। বিরোধীয় জমিতে চাষ করাকালীন ধারালো চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে খলিল খান নামের এক যুবকের ডান হাত কর্তন করা হয়েছে। গত ১০ আগষ্ট নলছিটি উপজেলার  হাড়িখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। 

জানা গেছে, ১০ আগষ্ট সকালে নলছিটি পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের সৈজদ্দিন খানের পুত্র খলিল খান ৪/৫ জন দিন মজুর নিয়ে কুলকাঠি ইউনিয়নের হাড়িখালী মৌজায় এসএ ৪৩৩ খতিয়ানে তাদের ক্রয় করা ২৫ কাঠা জমিতে চাষাবাদ করতে যায়। উক্ত জমি নিয়ে বিরোধ থাকায় নাঙ্গুলী গ্রামের শাহিন মল্লিক, তার স্ত্রী রিজিয়া বেগম ও তাদের দুই পুত্র নাইম মল্লিক, নাদিম মল্লিকসহ ৭/৮ জন দুপুর অনুমান ২.৩০ ঘটিকার দিকে আকস্মিক উপস্থিত হয়ে খলিল খান ও তার দিন মজুর ৪/৫ জনকে লাটি-সোটা দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও চাপাতি দিয়ে কোপাতে থাকে। এসময় শাহিন মল্লিকের স্ত্রী রিজিয়া বেগম চাপাতি হাতে নিয়ে খলিল খান কে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করে। কোপের আঘাতে ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার উপক্রম হয়েছে। স্থানীয়রা আহত খলিল খান কে উদ্ধার করে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে বরিশাল শেরে ই বাংলা মেডিকেলে রেফার্ড করে। এ ব্যাপারে খলিল খানের ভাই লিটন খান বাদী হয়ে নলছিটি থানায় ৭ জনকে আসামি করে এজাহার দায়েরের আবেদন করেছেন। নলছিটি থানার পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন।