নেশাগ্রস্থদের হামলা থেকে রক্ষা পেতে ৯৯৯ এ ফোন

নেশাগ্রস্থদের হামলা থেকে রক্ষা পেতে ৯৯৯ এ ফোন
ছবিঃ সংগৃহীত

মো.ফোরকান,বাউফল ( পটুয়াখালী )প্রতিনিধি।।পটুয়াখালীর বাউফলে গাঁজা খাওয়ায় বাঁধা দেয়ার ঘটনায় নেশাক্তদের হামলার শিকার সাবেক ইউপি সদস্য ও তার স্ত্রী। নেশাক্তরা বাড়িতে প্রবেশ সড়ক কেটে বিচ্ছিন্ন করে দেয়া সহ ২৫টি ফলদ গাছ কেটে ফেলেছে। আতঙ্কিত পরিবার ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করলে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় পুলিশ আসায় সটকে পরে দুর্বৃত্তরা। 

ভুক্তভোগীরা জানান, উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের ঝিলনা গ্রামের চার নং ওয়ার্ডের তিনবারের সাবেক ইউপি সদস্য মো. আশরাফুল আলম বুধবার দিবাগত রাত ৯টায় বাড়িতে প্রবেশকালে স্থানীয় মোস্তফা আকনের ছেলে মামুন ও জয়নাল শরীফের ছেলে শাহ আলমকে গাঁজা সেবন করতে দেখে বাড়ির সামনে থেকে চলে যেতে বলেন। ওই সময় সেবনকারীদের সাথে বাকবিতন্ডা হলে তাকে ভয়ভীতি দেখায়। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় কোন কিছু বুঝে না উঠার আগেই নেশাক্ত মামুন ও শাহআলমসহ বহিরাগত ৭/৮জন বাড়ির প্রবেশ সড়কের মাটি উপরে ফেলে রাস্তাটি আলাদা করে দেয়,বাঁধা দিলে তারা ইউপি সদস্য আশরাফুল আলম ও তার স্ত্রী খাদিজা বেগমকে মারধর করে। ভুক্তভোগীরা প্রতিকার পেতে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করে 
পুলিশি সহায়তা চায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌছানোর আগেই ওই সড়কের দু’পাশে রোপিত নারিকেল, পেয়ারা, মাল্টা ও কলা জাতের প্রায় ২৫টি ফলদ গাছ কেটে ফেলে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় মামুনের চাচা আ. রব আকন বলেন, বাড়িতে প্রবেশ সড়কটি ৩০৯ খতিয়ানের ৮২১নং দাগে অবস্থিত। ওই দাগে ৪০ কড়া (১ একর) জমির মধ্যে আমরা স্থানীয় মাপের ১১ কড়া জমির মালিক। বাকি ২৯ কড়া জমি আশরাফ মেম্বরের। তাই প্রবেশ পথটিতে আমাদের মালিকানা আছে। এ ঘটনায় বাউফল থানার ওসি মো. আল-মামুন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো 
হয়েছে। তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।