পেকুয়ায় মধ্যরাতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে গৃহবধু নিহত,আহত-২

পেকুয়ায় মধ্যরাতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে গৃহবধু নিহত,আহত-২
ছবিঃ সংগৃহীত

সুনিপ দাশ সৌরভ,চকরিয়া ১২ এপ্রিল।।কক্সবাজারের পেকুয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে অস্ত্রধারীদের গুলিতে সেলিনা আক্তার(৪৫) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে।এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন আরও দু'জন।সোমবার রাত ২টার দিকে উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের বুধামাঝির ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সেলিনা আক্তার ওই এলাকার ফরিদুল আলমের স্ত্রী। আহতরা হলেন একই এলাকার সেলিম উদ্দিনের ছেলে নাজমুস সাকিব (২২) ও নুরুল আবছারের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫)। এদের মধ্যে বুকের পাঁজরে গুলি লাগা নাজমুস সাকিবের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান গেছে। সে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।পেকুয়া থানার এসআই সিদ্দিকুর রহমান বলেন, নিহতের মাথায় গুলির চিহ্ন রয়েছে।তাছাড়া মুখমণ্ডলের নাকের অংশেও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়।খোঁজ নিয়ে জানা যায়,দীর্ঘদিন ধরে বারবাকিয়ার বুধামাঝির ঘোনা এলাকার নজরুল ইসলাম ও মাহমুদ হোছাইনের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো।রোববার রাতে মাহমুদ হোছাইনের ছেলে মাহমুদুল করিম ও মোঃ মফিজের নেতৃত্বে একদল ভাড়াটিয়া অস্ত্রধারী বাহিনী বিরোধীয় জায়গা দখল নিতে যায়।এতে নজরুল ইসলামের পক্ষের লোকজন বাধা দিতে গেলে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে অস্ত্রধারীরা।এতে ঘটনাস্থলেই মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান সেলিনা আক্তার।গুরুতর আহত গুলিবিদ্ধ অন্য দু'জনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার করেন। এঘটনায় স্থানীয়রা মাহমুদুল করিম ও মোঃ মফিজকে ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।এব্যাপারে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুর রহমান মজুমদার বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তায় পুলিশ দুজনকে আটক করেছে।