পারিবারিক কলহের জের, শাশুড়িকে ৬ টুকরা করে মাটি চাপা, পুত্রবধূ গ্রেপ্তার

পারিবারিক কলহের জের, শাশুড়িকে ৬ টুকরা করে মাটি চাপা, পুত্রবধূ গ্রেপ্তার
গ্রেফতারকৃত পুত্রবধূ রাশিদা বেগম/ ছবি- সংগৃহীত

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার, ১৭ জুলাই।।কক্সবাজারের রামু দক্ষিণ মিঠাছড়ির মধ্যম উমখালী গ্রামে বৃদ্ধা শাশুড়ি মমতাজ বেগমকে নৃশংসভাবে খুন করার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছে পূত্রবধু রাশেদা বেগম। পরে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে রামু থানা পুলিশ।

নিহত মমতাজ বেগম (৭০) স্থানীয় মৃত গোলাম কবিরের স্ত্রী। ঘাতক রাশেদা বেগম নিহত মমতাজ বেগমের ছেলে আলমগীরের স্ত্রী। নিহত শাশুড়ি মমতাজ বেগম পুত্রবধূ রাশেদা বেগমের আপন ফুফু।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য দুদু মিয়া বলেন, মমতাজ বেগমের ছেলে আলমগীরের স্ত্রী রাশেদা বেগমের সাথে শাশুড়ি মমতাজের দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। সেই কলহের জের ধরেই গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে তাকে গলা কেটে হত্যা করে রাশেদা বেগম। পরে সেই লাশ ৬ টুকরো করে বাড়ির আঙ্গিনায় বস্তাভর্তি করে গর্তে পুঁতে রাখে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শনিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে রামু থানা পুলিশ বস্তাভর্তি মমতাজ বেগমের লাশ উদ্ধার করে। পুত্রবধূ রাশেদার স্বীকারোক্তি মতে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।