পল্লবীতে সৎমা হত্যায় অভিযুক্ত সুজন সাভার থেকে গ্রেফতার

পল্লবীতে সৎমা হত্যায় অভিযুক্ত সুজন সাভার থেকে গ্রেফতার
ছবি: সংগৃহীত

গতকাল শনিবার বিকাল ৫টায় পল্লবীর ১২ নম্বর বি ব্লকের ৭ নম্বর রোডের ১২৫ নম্বর বাড়িতে নিচ তলায় সৎ মায়ের কাছে টাকা চাওয়ার পর টাকা না দেওয়ায় সৎ ছেলে সুজন ক্ষিপ্ত হয়ে মাংশ কাটার কাঠ দিয়ে মাথায় আঘাত করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরনের কারনে ঘটনা স্হলে মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালে শাহানা তার সৎ ছেলে সুজনের সঙ্গে বাড়ির গ্যারেজ বসে কথা বলছিলেন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুজন তার সৎ মা শাহানাকে গ্যারেজে রাখা মাংস কাটার খাটিয়া দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই শাহানার মাথার মগজ বেরিয়ে আসে। এরপর ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক সুজন পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নিহতের নিজ সন্তান খন্দকার ইমরুল(৩২) সুজন বিশ্বাস  এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে  ঢাকার সাভার থানার রেডিও কলোনী এলাকা থেকে আসামী সুজন বিশ্বাস (৩২) কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারের বিষয়ে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পুলিশ জানায়, আসামী সুজন তার সৎ মায়ের কাছে টাকা চাওয়ার পর টাকা না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে কাঠ দিয়ে আঘাত করলে ঘটনা স্হলে মৃত্যু হয়। গ্রেফতারের পর আসামী সুজন বিশ্বাস (৩২) অকপটে স্বীকার করছে।

পল্লবী থানার ওসি জনাব পারভেজ ইসলাম পিপিএম (বার) জানান, সুজনকে কিছুদিন আগে ডাকাতির প্রস্তুতির মামলায় গ্রেফতার করা হয়,৭ দিন আগে জামিনে বেরিয়েছেন।