পুলিশ পরিচয়ে বিয়ে বাদাম বিক্রেতার

পুলিশ পরিচয়ে বিয়ে বাদাম বিক্রেতার

জাহিদুল হাসান জাহিদ।স্টাফ রিপোর্টার।। নীলফামারীর সৈয়দপুরের পুলিশ ফাঁড়ির কর্মরত অফিসার পরিচয়ে কলেজ পড়ুয়া তরুণীকে বিয়ে করার অভিযোগে আব্দুল আলীম (৩২) নামে এক যুবক আটক হয়েছে। ২৪ মে সন্ধ্যা ৭টার দিকে বগুড়ার গোকুল ইউনিয়নের একটি গ্রাম থেকে তাকে আটক করে বগুড়া পুলিশ।

আটক আব্দুল আলীমের বাড়ি পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ উপজেলার ডাকিয়াপারা গ্রামে। তার বাবার নাম ফজলুল হক। পুলিশ পরিচয় দিলেও আলিম একজন বাদাম বিক্রেতা। এটি তার ৫ম বিয়ে, তার দুটি সন্তানও রয়েছে।

জানা যায়, মুঠোফোনের মাধ্যমে আলীমের সঙ্গে ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রায় দেড় বছর ধরে নিজেকে পুলিশের অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রেম চালিয়ে যান আলীম। চলতি মাসের ১৮ তারিখ তিনি তার প্রেমিকার বাড়ি যান এবং ৩ লাখ ৫০ হাজার ৫০০ টাকা মোহরানা দেখিয়ে বিয়ে করে সেখানেই সংসার শুরু করেন।

পুলিশ জানায়, আলীম তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে জানান তিনি নীলফামারীর সৈয়দপুর থানার অধীনে একটি পুলিশ ফাঁড়িতে অফিসার পদে কর্মরত আছেন। কিন্তু তার কথাবার্তায় অসংলগ্নতা পেলে সন্দেহ করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরবর্তীতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে নিজের বাদাম বিক্রির পেশার কথা স্বীকার করেন। আরও জানান, তিনি পুলিশ নন, তবে পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করেন।

বগুড়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদ গণমাধ্যমকে জানান, আটক আলীমের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) সারোয়ার আলম জানান, বগুড়া সদর সার্কেলের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, আটক আলীমের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় একটি মামলা হয়েছে।