বাউফলে নৌকা মার্কার সমর্থন  করার অপরাধে কানধরে ওঠ বস 

বাউফলে নৌকা মার্কার সমর্থন  করার অপরাধে কানধরে ওঠ বস 
ছবি: সংগৃহীত

মো. ফোরকান।বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি।।পটুয়াখালী বাউফলের নাজিরপুর তাঁতেরকাঠী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন পরবর্তী একেরপর সহিংস ঘটনার পর এবার নৌকা মার্কার সমর্থন করায় কয়েকজন কিশোরকে প্রকাশ্যে কান ধরে ওঠ বস করানো হয়েছে।  

অভিযোগ চশমা মার্কার বিজয়ী চেয়ারম্যান এস এম মহাসিনের  কর্মী তাওহিদ তাহসাস তামিমের বিরুদ্ধে। তামিম ওই ইউনিয়নের একটি  কিশোর গ্যাংয়ের লিডার হিসাবে পরিচিত। 

কান ধরে ওঠ বস করানোর একটি ভিডিও এখন বাউফলে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে। তাই সম্মানহানির ভয়ে আনেক নৌকার সমর্থকরা এলাকা ছেড়ে যাচ্ছে । 

এ বিষয়ে তামিম বলেন, নৌকার সমর্থনের জন্য নয়, এলাকার বড় ভাইদের সাথে বেয়াদবি করার অপরাধে তাদেরকে কান ধরে ওঠ বস করানো হয়েছে।


পরাজিত নৌকার প্রার্থী ইব্রাহিম ফারুক এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, দলের যড়ষন্ত্রের কারণে  আমাকে মাত্র ৬৫ ভোটে হারতে হয়েছে। নির্বাচনের পর বিজয়ী  বিদ্রোহী প্রার্থী এস এম মহসিনের সমর্থকরা নৌকার অর্ধশত কর্মী সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুর করেছে। তাদের ভয়ে কয়েকশ নৌকার সমর্থকরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। ভয়ে কেউ থানায় অভিযোগও দিতে পারছেনা। এদিকে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ১৭৫ জন আসামী হওয়ায় এলাকা এখন পুরুষশূণ্য প্রায়। 

উল্লেখ্য, গত ৬ সেপ্টেম্বর ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।  

এসম্পর্কে বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আল মামুন সাংবাদিকদের বলেন, এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে পুলিশের টহল অব্যাহত রয়েছে। কিশোর গ্যাংদের ধরতে অভিযান চলছে।