বাউফলে বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

বাউফলে বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১
ছবি: সংগৃহীত

মো.ফোরকান, বাউফল, (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি।।পটুয়াখালী বাউফলের আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ লক্ষ্মীপাশা গ্রামে এক বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরী (১৩) ধর্ষিত হয়েছে।

 স্থানীয়রা শুক্রবার (৩ জুন)  দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ধর্ষক দেলোয়ার খান (১৪) নামে এক কিশোরকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ  করেছেন। 

ধর্ষক দেলোয়ার ভায়লা ফজলুল হক মোল্লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র । তার বাবার নাম নুরুল হক খান।

জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকালে একই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নুরুল হক খানের নবম শ্রেণী পড়ুয়া ছেলে দেলোয়ার ওই বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে প্রলোভন দেখিয়ে ঘরের বাইরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। সন্ধ্যার দিকে ওই কিশোরী মা তার মেয়ের গোপনাঙ্গ থেকে রক্তপাত হতে দেখে সন্দেহ হলে ওই কিশোরী ইশারা ইঙ্গিতে তাকে ধর্ষণের কথা বলেন। 

এরপর সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার ও কয়েকজ স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে সন্দেহভাজন ৪ জনকে ওই কিশোরীর সামনে হাজির করলে ওই কিশোরী দেলোয়াকে দেখিয়ে দেন।

 ওই সময় স্থানীয়রা দোলোয়ারকে আটক করে বাউফল থানায় খবর দেন। 

বাউফল থানার এসআই রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে  এসে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে । 

পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে  বাউফল থানার ওসি ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষক দেলোয়ারকে থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন, ধর্ষিতাকে চিকিৎসার জন্য ওই রাতেই পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অভিযোগ দাখিলের জন্য ধর্ষিত কিশোরীর বাবা-মাকে থানায় আসতে বলা হয়েছে।