বাউফলে ভূল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যু ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা 

বাউফলে ভূল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যু ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা 
ছবিঃ সংগৃহীত

মো.ফোরকান,বাউফল(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।। ২৬ আগস্ট, বৃহস্পতিবার।। পটুয়াখালীর বাউফলের কালিশুরি বন্দরে লাইফ কেয়ার ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনষ্টিক  সেন্টারে চিকিৎসকের ভূল চিকিৎসায় সাথী আক্তার (২৩) নামের এক প্রসূতি মায়ের মুত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার (২৬ আগষ্ট) দুপুরে চিকিৎসক আহম্মেদ কামাল তুষার ,চিকিৎসক নাবিলা রহমান,ওই ক্লিনিকের মালিকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে প্রসূতির বড় ভাই শুভ হাওলাদার বাদী হয়ে বাউফল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনা স্থান থেকে  প্রসূতি মায়ের লাশ উদ্ধার করে বাউফল থানায় নিয়ে আসে।সাথী উপজেলার কাছিপাড়া ইউনিয়নের দরিয়াবাদ গ্রামের বাসিন্দা মিলন হাওলাদারের স্ত্রী । 

জানা গেছে, গত বুধবার বিকালে সাথী আক্তারের প্রসব ব্যথা উঠলে  কালিশুরি নিউলাইফ ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনষ্টিক  সেন্টারে নিয়ে যায় প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দিতে সাথী আক্তারের বড় ভাই শুভ হাওলাদার। এ সময় ওই ক্লিনিকে থাকা চিকিৎসক ডাঃ আহম্মেদ কামাল তুষার প্রসূতি নারীকে দেখে অপারেশন করে সন্তান প্রসবের প্রস্তাব দেয় ।
্সাথীর বড় ভাই শুভ হাওলাদার বলেন, বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন সিজারের ব্যবস্থা ও সরকারি চিকিৎসক রয়েছে। সে তার বোনকে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য ককমপ্লেক্সে অপারেশন করাবেন বলে তার বোন কে নিয়ে চলে আসতে চাইলে ডাঃ আহম্মেদ কামাল ইশারা দিয়ে ক্লিনিকের মালিক শাকিল সিকদার ও নাসিরকে  তারা  তার অন্তসত্ত্বা বোনকে জোড় পূর্বক ক্লিনিকের অপারেশন রুমে নিয়ে  তড়িগড়ি করে অস্ত্রোপচার করান। তার বোনের একটি পুত্র সন্তান জন্ম  হয়েছে রোগীর অবস্থা ভালো না বলে এ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে দেয় তার বোনকে। 
শুভ হাওলাদার তার বোনকে বুধবার সন্ধার পরে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ মাহামুদুল হাসান তাকে মৃত্যু বলে ঘোষনা করেন। ডাঃ আহম্মেদ কামাল ও ডায়াগনষ্টিক মালিকের মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি । 
 এ বিষয়ে বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ আল মামুন বলেন, একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীরা পলাতক রয়েছে । তবে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। লাশ ময়না তন্তের জন্য পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে ।