বাউফলে ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন

বাউফলে ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন
ছবিঃ সংগৃহীত

মো.ফোরকান,বাউফল(পটুয়াখালী ) প্রতিনিধি।।ময়না তদন্ত ছাড়াই নিহত এক শ্রমিকের লাশ দাফন করা হয়েছে। আজ রবিবার সকালে তার লাশ দাফন করা হয়। বিষয়টি নিয়ে এলাকার মানুষদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। নিহতের নাম  সাইদুল (২১)।  তিনি খেজুর বাড়িয়া গ্রামের আবুল বশার মৃধার ছেলে।

জানা গেছে,শুক্রবার বিকালে জুলহাস (২৩) হোসেন মোল্লা (২১) ও সাইদুল (২০) ৩ বন্ধুমিলে আবুবকর নামে এক হোন্ডা চালকের ভাড়া গাড়ী নিয়ে বেড়াতে যায়। বিকাল ৫টার দিকে কালিশুরী থেকে ফেরার পথে বাজারের দক্ষিন পার্শের ব্রিজের ঢালে  নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যায় মটর সাইকেলটি। আহত অবস্থায় সাইদুলকে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। অবস্থার অবনতি হলে ওই দিনই তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে গত শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তিনি মারা যান। 
এলাকাবাসী জানায়,গাড়ীর চালক ছিলো আমীর হাওলাদারের পুত্র জুলহাস। জুলহাস ও আবদুল আলী হাওলাদারের ছেলে হোসেন মোল্লা সম্পুর্ণ অক্ষত থাকলেও কিভাবে সাইদুল যখম হলো সেটাবুঝে আসছেনা! 
নিহত সাইদুল এর পিতা আবুল বশার মৃধা জানান, আমার ছেলে ঢাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতো। বাড়ীতে আসার পরে ৩ বন্ধু এক সাথে বেড়াতে গেলে ওই ঘটনা ঘটে। রবিবার সকাল ১০টায় পারিবারিক কবর স্থানে তার দাফন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। ‘ঘটনার পর পরই বাউফল থানার দারোগা মামুন স্যার আইছিলো; আমাদের কোন অভিযোগ নাই।’
দারোগা মামুন জানান,এ ঘটনার কিছুই আমি জানিনা। বাউফল থানার ওসি আল মামুন জানান,তারা নিজেরাই এক্সিডেন্ট হয়েছে,অন্য কারো হাত ছিলনা; অভিযোগ না থাকায় পোস্ট মর্টেম করা হয়নি।