বন্যাকবলিত ৩ হাজার পরিবারকে খাবার বিতরণ করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান

বন্যাকবলিত ৩ হাজার পরিবারকে খাবার বিতরণ করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান
ছবিঃ সংগৃহীত

সুনিপ দাশ সৌরভ,চকরিয়া, ৩০ জুলাই।। প্রকৃতি প্রকৃতির নিয়মে চলে, এ প্রকৃতির উপর সৃষ্টির সেরা জীবের কারো হাতনেই সাধ্যনাই আটকে রাখার, সে নিজ গতিতে বহমান,সে আপন বেগে চলে এখন ঘোর শ্রাবণ,

শ্রাবণে মাসে নদী ও কুমারী, এখন সব নদীর যৌবনে ছলছল মিতালি পাহাড়ি ঢলের আনেমনে খেলাখেলে সে-যৌবনে রঙে রঙিন পানির পূর্ণতা ভরা চকরিয়া  মাতামুহুরী নদী

কক্সবাজারের চকরিয়ার ভারী বৃষ্টির কারণে, ১৮ টি ইউনিয়ন একটি পৌরসভা  বন্যা কবলিত ভারী রুপ নিয়েছে, এক নাগরে টানা বৃষ্টির বশত মাতামুহুরি নদী বয়ে পাহাড়ি জমাট থাকা উজানি পানি প্রবেশ করে চকরিয়া উপজেলা পৌরসভার দুলক্ষ মানুষ পানি-বন্দি, ধীরে ধীরে প্লাবিত হয় পুরো ১৮ টা ইউনিয়ন ও চকরিয়া পৌর শহর, ঘরবন্দী প্রায় দু’লক্ষধিক মানুষ, হতাশার সীমা নেই, নেই স্বাভাবিক  জীবন যাপন, বন্যাকবলিত মানুষের দৃশ্য ভয়াবহ ও ভয়ংকর  দৃশ্যের অবতারণা,

এদিকে সরকারের কঠোর লকডাউন ঘোষণা পর, অধিকাংশ পবিরার অর্থের অভাবে খাদ্যের সমস্যর মধ্যে জর্জরিত, নেই দৈনিক কোন রোজ-রোজগারের সুব্যবস্থা, এমতাবস্থায়  অধিক পরিবার পানি বন্দির দৃশ্যপটে আটক দেখে, বন্যাকবলিত এলাকা কয়েক দফায় দফায় পরিদর্শন করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী, বন্যাকবলিত মানুষের আর্তনাত দেখে তক্ষানিক শুকনো খাবার প্রদান করেন এরপর   বৃহস্পতিবার ২৯ জুলাই দ্বিতীয় ধাপে বন্যাকবলিত দুইহাজার পরিবারের মাঝে প্যাকেট করে খাবার প্রদান করেন সেচ্ছসেবকরা,দৈনিক আজকের সংবাদকে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, আমি সরে জমিনে গিয়ে দেখি  প্রায় গ্রামে পাহাড়ি ঢলের পানি প্রবেশ শুরু হয়েছে পানির গতিবেগে ভিশন যার কারণে অধিক পয়েন্ট বেড়িবাঁধ ভেঙে অনেক  এলাকা প্লাবিত হয়েছেন, ইতিমধ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে ১০ জন করে সেচ্ছসেবকের ইউনিটের  ব্যবস্থা করে দিয়েছি এবং উপকূলীয় অঞ্চল সহ-সব সুইচ গেইট খুলে সরে জমিনে গিয়ে খুলে দিয়েছি নির্দেশ  উক্ত পরিদর্শন এবং খাদ্য  সহায়তা প্রদান করার সময়  উপস্থিত ছিলেন, চকরিয়া উপজেলা  আওয়ামীলীগের সদস্য, আসন্ন হারবাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক পরিমল বডুয়া, উপজেলা সেচ্ছসেবক লীগের সভাপতি, পৌরসভা ৩ নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয়  কাউন্সিলর প্রার্থী,  শওকত হোসেন, বন্যাকবলিত সেচ্ছসেবক দলের টিম লিডার উপজেলা চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারী 
পৌর-ছাত্রলীগের নেতা সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা  ছাত্রলীগের নেতা হৃদয় মোহাম্মদ সায়মন, কাকরা শ্রমিকলীগের সাধারণ সস্পাদক মিরাজ উদ্দিন মিজবা, সহ উপজেলা চেয়ারম্যানের নবগঠিত দৃর্যোগ মোকাবেলার সেচ্ছসেবকরা উপস্থিত ছিলেন।