বানারীপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

বানারীপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
ছবিঃ সংগৃহীত

নাহিদ সরদার।।বানারীপাড়া প্রতিনিধি।। ২৭ মে, বৃহস্পতিবার।।  ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে এরই মধ্যে  বানারীপাড়া উপজেলার ৮ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকা পানি প্লাবিত হয়েছে। বুধবার (২৬ মে) দুপুরের পর থেকেই সন্ধ্যা নদীর সংলগ্ন বানারীপাড়া পৌরসভা সহ প্রত্যেকটি ইউনিয়নের জোয়ারের পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের। সন্ধ্যা নদীর পাড়ে অনেকগুলি ইটভাটা রয়েছে পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রত্যেকটি ইটভাটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাইশারী ইউনিয়নের ইটভাটা সহ মাছের ঘের পোল্ট্রি মুরগির খামারের বেশিরভাগই পানি বেড়ে যাওয়ায় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। উদয়কাঠী ইউনিয়ন এর  কয়েকটি হাটবাজারসহ রাস্তাঘাট কয়েকটি গ্রাম পানিতে ডুবে গেছে।  ইলুহার ইউনিয়ন এর সরকারি প্রাইমারি বিদ্যালয় সহ রাস্তাঘাট পানিতে প্লাবিত হয়েছে। বিশারকান্দি ইউনিয়নের সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন মাছের ঘের ও কৃষকেরা বিশারকান্দি ইউনিয়ন সবচেয়ে নিচু এলাকা এই ইউনিয়নে পানির জলসা বেড়ে গেলে অধিকাংশ গ্রাম ক্ষতির সম্মুখীন হয় রাস্তাঘাট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বহুদিন পানিবন্দি থাকে এই ইউনিয়নের  গ্রামের মানুষ। সলিয়াবাকপুর ইউনিয়ন এর খেজুর বাড়ি আবাসন গোয়াইলবাড়ি ও আহমদাবাদ বেতাল সহ  কয়েকটি গ্রাম পানি প্লাবিত হয়েছে। চাখার ইউনিয়নের  মাছের ঘের গবাদি পশুর খামার ও আরো কয়েকটি গ্রামসহ রাস্তাঘাট এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ পানি উচ্চতা বেড়ে যাওয়ার কারণে ক্ষতির সম্মুখীন  হয়েছে।

বানারীপাড়া উপজেলা  আশ্রয়কেন্দ্র এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সহ নিরাপদ জায়গা প্রস্তুত রাখা হয়েছে এছাড়াও  শুকনো খাবার এবং পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট রাখা হয়েছে। উপজেলাগুলোয় প্রয়োজনীয় সংখ্যক মেডিকেল টিম ও ফায়ার সার্ভিস প্রস্তুত রয়েছে  বলে জানিয়েছে উপজেলা নির্বাহি অফিসার। এদিকে বর্তমান অবস্থা সন্ধ্যা নদীর পানির তীব্র স্রোত কিছুটা কমতে শুরু করেছে।