বানারীপাড়ায় আওয়ামী লীগ নেতার অবৈধভাবে গড়ে তোলা মার্কেট উচ্ছেদ

বানারীপাড়ায় আওয়ামী লীগ নেতার অবৈধভাবে গড়ে তোলা মার্কেট উচ্ছেদ
ছবিঃ সংগৃহীত

বানারীপাড়া(বরিশাল)প্রতিনিধি।।বরিশালের বানারীপাড়ায় পৌর শহরের ফেরিঘাটের সন্ধ্যানদীর তীর দখল করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানার অবৈধভাবে গড়ে তোলা মার্কেট উচ্ছেদ করা হয়েছে। শনিবার (৬ নভেম্বর) বেলা ১১টায় শুরু হয়ে দিনভর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন কুমার সাহা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা রিক্তার নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে অবৈধ এ মার্কেট সম্পূর্ণ ভেঙে ফেলা হয়। এ সময় বানারীপাড়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. জাফর আহম্মেদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, ২০১২ সালে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা বানারীপাড়া পৌর শহরের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বন্দরবাজারের ফেরিঘাটে চান্দিনাভিটার জন্য বিভিন্ন দাগে ৫ নামে আড়াই শতাংশ খাস সম্পত্তি একসনা লিজ নেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি বিভিন্ন দাগে ( ৫ দাগ) না গিয়ে লিজের কিছু অংশসহ সন্ধ্যানদীর তীরের প্রায় ৭/৮ শতক সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে ২০১৫ সালে একটি ৪ কক্ষ বিশিষ্ট সেমি-পাকা মার্কেট নির্মাণ করে সিকদার রড-সিমেন্ট, মদিনা সিরামিকস নামক গুদাম, আল্লাহ্ মালিক টি হাউজ ও ভ্যারাইটিজ স্টোর এবং মনির কনফেকশনারী ও টি স্টোরের জন্য ৪ জন ব্যবসায়ীর কাছে ভাড়া দেন।
উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে পৌর শহরের ২ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ নাজিরপুর ও ১ নম্বর ওয়ার্ডের খেজুরবাড়ি আবাসন পর্যন্ত শহর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হয়।
স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম ব্যবসায় বানিজ্যের প্রসারের লক্ষে সন্ধ্যানদীর তীরে গড়ে তোলা এ শহর রক্ষা বাঁধের বন্দরবাজারের দক্ষিণপাড় ফেরিঘাট ও উত্তরপাড় লঞ্চঘাট এলাকায় সন্ধ্যানদীর শাখা নদীতে একটি ব্রিজ নির্মাণের উদ্যোগ নেন। কিন্তু উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানার নদী তীরে গড়ে তোলা ওই মার্কেটের কারণে ব্রিজ নির্মাণ কাজ বিঘ্নিত হচ্ছিল। সম্প্রতি ওই স্থানে ব্রিজ নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ায় এ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন কুমার সাহা বলেন, সন্ধ্যানদীর তীর দখল করে গড়ে তোলা অবৈধ মার্কেট নির্মাণ করায় উচ্ছেদ অভিযানের মাধ্যমে তা অপসারণ করা হচ্ছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান। এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা বলেন, উপজেলা ভূমি অফিস তার লিজ নেওয়া সম্পত্তি ওই স্থানে দেখিয়ে দেওয়ায় তিনি সেমি-পাকা দোকানঘর নির্মাণ করেছিলেন। 
এদিকে পৌর শহরের দক্ষিণ পাড়ের বন্দরবাজারের সঙ্গে উত্তরপাড়ের ব্যবসা-বানিজ্যের প্রসারে অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্রিজ নির্মাণের প্রয়োজনীয়তায় উপজেলা প্রশাসনের এ উচ্ছেদ অভিযানকে বানারীপাড়াবাসী সাধুবাদ জানিয়েছেন।