বানারীপাড়ায় 'আলোক শিখা'র প্রধান কার্যালয়ে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত

বানারীপাড়ায় 'আলোক শিখা'র প্রধান কার্যালয়ে দুর্ধর্ষ  চুরি সংঘটিত
ছবিঃ সংগৃহীত

নাহিদ সরদার।। বানারীপাড়া(বরিশাল)প্রতিনিধি।।বানারীপাড়া পৌর শহরের ৯নং ওয়ার্ডে আর্থ সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা "আলোক শিখা"র প্রধান কার্যালয়ে গভীর রাতে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। শনিবার (৭ আগস্ট) রাতের যে কোনো সময় এ চুরি সংঘটিত হয়। সংঘবদ্ধ চোর চক্র অফিসের দরজার সিটকিনি তালাসহ ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে বিশাল সিন্দুকে থাকা সাড়ে ১২ ভরি সোনা, ৪ ভরি রূপা ও নগদ প্রায় ২০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। সিন্দুকের চাবি অফিসের ড্রয়ারেই ছিলো। এ বিষয়ে আলোক শিখার প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মো. আল আমিন জানান, আমি প্রতিদিনের ন্যায় রাত সাড়ে ৯টার পরে অফিসের কাজ শেষে রুম তালাবদ্ধ করে চলে যাই। সকাল ৮টার দিকে অফিস খুলতে এসে দেখি দরজা খোলা ও অফিসের সবকিছু তছনছ। পরে দেখি সিন্দুকের ভল্টে থাকা সোনা, রূপা ও টাকা নেই। বিষয়টি আমি 'আলোক শিখা'র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মো. দেলোয়ার হোসেনকে তাৎক্ষণিক জানাই। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, অফিসে কোনো সিকিউরিটি গার্ড নেই। এমনকি   কোথাও সিসিটিভি ক্যামেরা নেই। তবে রাতে বাতি জ্বালানো থাকে। মূল গেট আটকানো ছিলো। ধারণা করা হচ্ছে দেয়াল টপকে চোরের দল ভিতরে প্রবেশ করে।

উল্লেখ্য, বানারীপাড়ায় প্রশাসনের নাকের ডগায় একের পর এক দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হলেও এর কোনো প্রতিকার পাচ্ছে না ভুক্তভোগীরা। সাধারণ মানুষ চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।