বেরসিক পুলিশ! গ্যাং লিডার জেলে, শিষ্যদের রাস্তায় পিঠ মোড়া

বেরসিক পুলিশ! গ্যাং লিডার জেলে, শিষ্যদের রাস্তায় পিঠ মোড়া
ছবি: সংগৃহীত

হুগলির  ‘ডন’ টোটন বিশ্বাসকে বৃহস্পতিবার আদালতে আনার সময় তার ‘নিরাপত্তা’র দায়িত্ব নিজেদের কাঁধে তুলে নিলেন তাঁর ‘সশস্ত্র’ ভাই ব্রাদার।  এর কারণ হিসেবে জানা যায়, টোটন পুলিশ হেফাজতে থাকাকালীন কয়েকদিন আগেই গুলিবিদ্ধ হয়েছে। সে কারনেই টোটনকে পাহারা দিয়ে কোর্টে নিয়ে যাচ্ছিলো তার শিষ্যরা। গত ৬ আগস্ট পুলিশের সাম্নেই গুলিবিদ্ধ হয় টোটন। ধারণা করা হচ্ছে এবার সেই ঝুঁকি এড়াতেই টোটনের শিষ্যরা আগ্নেয়াস্ত্রসহ বাইক নিয়ে রাস্তায় পাহারায় ছিলো। শিষ্যদের অনেকেই ছিলো সশস্ত্র। পুলিস তাদের গ্রেফতার করে সকল আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে।

জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার পিজি হাসপাতাল থেকে পুলিশ ভ্যানে চড়িয়ে আদালতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল টোটনকে। পথে দেখা যায় অভূতপূর্ব ছবি। দিল্লি রোডে পুলিশ ভ্যান উঠতেই এক দল বাইক আরোহী যুবক সেই কনভয়ের পিছু নেয়। ডানকুনি থেকে দিল্লি রোডে ওঠার পর চন্দননগর পুলিশ টোটনের গ্যাংয়ের সদস্যদের আটকায়। তাঁদের রাস্তার পাশে হাঁটু মুড়িয়ে বসায়। এর পর হাত মাথার পিছনে দিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। পুলিশকর্মীরা প্রত্যেকের নাম লিখে নেন। পাশে পিস্তল হাতে পাহারায় থাকেন পুলিশ কর্মকর্তারা। টোটনের গ্যাংয়ের সদস্যের কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং কয়েক রাউন্ড কার্তুজ পাওয়া গিয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

চন্দননগরের পুলিশ কমিশনার অমিত পি জাভালগি বলেন, ‘‘বেশ কয়েক জনকে আটক করা হয়েছে। ওদের কাছে অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।’’ -সূত্র: আনন্দ বাজার