বিশ্বনাথে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ নারীসহ আহত ৬

বিশ্বনাথে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ নারীসহ আহত ৬
ছবি: সংগৃহীত

সিলেট অফিস:।। 24 মার্চ , বুধবার।। সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামে রান্নার কাজে ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণে সোমবার রাতে নারী-পুরুষসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। শ্রীধরপুর গ্রামের দিনমজুর ওয়ারিছ আলীর বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে। আহতদের ৩ জনের শরীরের প্রায় ৮০% অংশ আগুনে ঝলসে যাওয়ায় দিনমজুর পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসার জন্য দেশ-বিদেশে থাকা বিত্তবানদের সহযোগীতা কামনা করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সদস্যরা।
বিস্ফোরণে আহতরা হলেন- শ্রীধরপুর গ্রামের দিনমজুর ওয়ারিছ আলী (৭০), তার স্ত্রী দিলারা বেগম (৬০), পুত্র মঈনুল ইসলাম (২৬), ফয়সল আহমদ (২৩), মৃত সিতাব আলীর পুত্র নাঈম আহমদ (১৭) ও আনছার আলীর পুত্র কামরান মিয়া (২২)। আহতদের মধ্যে মঈনুল ইসলাম, ফয়সল আহমদ ও দিলারা বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে ঢাকাস্থ বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে তারা বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
ওয়ারিছ আলীর প্রতিবেশী মকসুদ খান ও শাহীন আহমদ জানান, সোমবার (২২ মার্চ) রাত সাড়ে ৭টার দিকে ওয়ারিছ আলীর বাড়ির রান্নাঘরে থাকা গ্যাস সিলিন্ডারের পাশেই লাকড়ির চুলায় ঘরের মহিলারা রান্না শুরু করেন, তখন তারা বুঝতে পারেন গ্যাসের সিলিন্ডার হতে গ্যাস লিক হচ্ছে। এসময় তারা পানি দিয়ে লাকড়ির চুলার আগুন নেবানোর চেষ্টা করলে ওই চুলা থেকে আগুনের ফুলকি ছিটকে পড়ে পাশে রাখা গ্যাস সিলিন্ডারের উপর। তখনই সিলিন্ডারটি বিস্ফোরণ হয়। এতে দগ্ধ হন মঈনুল, ফয়সল ও তাদের মা দিলারা বেগম।
এসময় বিস্ফোরণের আগুনে পুড়ে যায় ফ্রিজসহ রান্নাঘরে থাকা আসবাবপত্র। দগ্ধ তিন জনকে উদ্ধার ও আগুণ নিয়ন্ত্রনে আনতে গিয়ে আহত হন মঈনুলের পিতা ওয়ারিছ আলী, চাচাতো ভাই নাঈম আহমদ ও ভাতিজা কামরান মিয়া। স্থানীয় লোকজন আহতদেরকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে গুরুত্বর আহত মঈনুল ইসলাম, ফয়সল আহমদ ও তাদের মা দিলারা বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত ১টা দিকে ঢাকাস্থ বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়। আর অপর আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেন।