ভোলার তজুমদ্দিনে স.প্রা. বি অফিস কক্ষে নেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি

ভোলার তজুমদ্দিনে স.প্রা. বি অফিস কক্ষে নেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি
ছবি: মিলি সিকদার

মিলি সিকদার। ভোলা।। ভোলা জেলার  তজুমদ্দিন উপজেলার ৯০ নং মধ্য শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: রুহুল আমিনের স্বেচ্ছাচারিতা ও দুর্নীতির কারণে দিন দিন ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম। ঝরে  যাচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা। নানা বিশৃংখল অবস্থায় ভরপুর অত্র প্রতিষ্ঠানটি।

অনেক অভিযোগ রয়েছে এলাকাবাসীর এই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। ময়লা আবর্জনা ভরপুর বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গন। গণমাধ্যমকর্মীরা বিদ্যালয়ে সরেজমিনে দেখতে পায় প্রধান শিক্ষকের রুমে ও লাইব্রেরীতে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোন ছবি নেই। অথচ যেখানে  প্রত্যেক সরকারি প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি থাকা বাধ্যতামূলক।

সেখানে দিব্যি ফাঁকি দিয়ে চলছে ৯০ নং শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অফিস কার্যক্রম। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি উপেক্ষা করে শিক্ষা কার্যক্রম চালানো পুরোপুরি রাষ্ট্রীয় অবমাননার শামিল।

তাছাড়া আরও একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় দেখা যায়,বিদ্যালয়ের ভবনের সম্মুখে অত্যন্ত দুর্বল অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে আমাদের জাতীয় পতাকা। সূক্ষ্ম নিবিড় পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, পতাকার কাপড় টি তিন থেকে চার বছরের পুরনো ও ছেঁড়া । কাপড়ের মানও অত্যন্ত নিম্নমানের অথচ এই জাতীয় পতাকা আমাদের জাতীয় সার্বভৌমত্বের প্রতীক।কিন্তু আজ পতাকাটির বেহাল অবস্থা দেখে প্রশ্ন উঠেছে জাতীয় পতাকার মান মর্যাদা নিয়ে।

এই বিষয়ে সংবাদকর্মীরা প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান বিষয়টি ছোট খাটো ব্যাপার এই বিষয়ে আপনাদের বাড়াবাড়ি করার কিছুই নেই। প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নুরুল ইসলাম জানান বিষয়টি ব্যাপারে আমরা অবগত নই।এবং বিষয়টি দেখার দায়িত্ব সহকারী শিক্ষা অফিসারের।